ঢাকা, শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯, ২ ভাদ্র ১৪২৬ আপডেট : ১০ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২২ জুলাই ২০১৯, ১১:৩৩

প্রিন্ট

ওজন কমাতে শরীরের ক্ষতি করছেন না তো?

ওজন কমাতে শরীরের ক্ষতি করছেন না তো?
জার্নাল ডেস্ক

বর্তমান যুগে অন্যতম বড় শারীরিক সমস্যা মেদ। অনিয়মিত জীবনযাত্রা, জাঙ্কফুড ইত্যাদি কারণে ওজন বেড়ে যাওয়ার সমস্যায় ভোগেন অনেক মানুষ। তাছাড়া হরমোন বা জিনগত কারণে মেদের সমস্যা তো আছেই।

তাই দ্রুত ওজন কমাতে গিয়ে অনেকে অস্বাস্থ্যকর পদ্ধতি বেছে নেন। যার মধ্যে রয়েছে এক বেলা না খেয়ে থাকা, অনেকক্ষণ পরপর খাওয়া বা একদমই খাওয়া-দাওয়া ছেড়ে দেয়া। তাই বলে যায় যে ডায়েট সম্পর্কে অনেকেরই ভুল ধারণা রয়েছে। এভাবে অস্বাস্থ্যকর পদ্ধতিতে খাওয়া দাওয়া করে মেদ কমাতে গিয়ে নিজেরই ক্ষতি করে বসেন অনেকেই।

প্রতিদিন অনেকক্ষণ না খেয়ে থাকলে প্রাথমিক পর্যায়ে ওজন কমতে পারে। তবে, এ ক্ষেত্রে বিপরীত কিছু হওয়ার সম্ভাবনাও বেশি। এক বেলা না খেলে বা একেবারে খাওয়া-দাওয়া ছেড়ে দিলে ওজন না কমে বরং শরীরের ক্ষতি হয়। ফ্যাট না কমে শরীরের পেশির পরিমাণও কমতে পারে। ডায়েটিসিয়ানরা এমনই মনে করেন।

কী ক্ষতি হয়?

অনেকক্ষণ না খেয়ে থাকলে শরীরের মেটাবলিজম কমে যায়। এক জরিপে দেখা গিয়েছে প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিরা দিনে ১,২০০ কিলো ক্যালোরির কম খেলে অনেকটাই কমে যায় মেটাবলিজমের পরিমাণ। ফলে, শরীরে শক্তির ব্যবহার কমে যাবে। ফ্যাট বা চর্বি কমবে না। বরং শরীর দুর্বল হয়ে যাবে।

এছাড়া আপনি ব্যায়াম থেকে তেমন ফল পাবেন না। আরো হতে পারে আলসার, গ্যাসট্রিক, কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো সমস্যা। পর্যাপ্ত পুষ্টির অভাবে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়। ত্বকের সজীবতা কমে যায়।

তা হলে উপায় কী?

'ডায়েট' শব্দটির অর্থ না খেয়ে থাকা নয়। আপনার শরীরের প্রয়োজন অনুযায়ী পরিমিত ক্যালোরির খাবার খান। খাবারের রাখুন কার্বোহাইড্রেট, ফ্যাট, প্রোটিন, ফাইবার, ভিটামিনের ভারসাম্য।

ওজন কমাতে হলে প্রথমেই বাদ দিন জাঙ্ক ফুড, ডিপ ফ্রায়েড খাবার ও কোল্ড-ড্রিংক্স। কার্বোহাইড্রেট ও ফ্যাটের পরিমাণ রাখুন কমের দিকে। তিন বেলাই খান প্রচুর পরিমাণে শাক-সবজি, ফল, ছোট মাছ, চিকেন ব্রেস্ট।

আর বিকেলের নাস্তায় খেতে পারেন ছোলা, আমন্ড, মৌসুমি ফলের স্যালাড। সারাদিন বারবার খান, কিন্তু অল্প পরিমাণে খান। এতেই উপকার পাবেন।

আরএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত
close
close