ঢাকা, সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০, ১৬ চৈত্র ১৪২৬ আপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৭ মার্চ ২০২০, ০৯:৫২

প্রিন্ট

ভারতে ১ লাখ ৮০ হাজার কোটি রুপির প্যাকেজ ঘোষণা

ভারতে ১ লাখ ৮০ হাজার কোটি রুপির প্যাকেজ ঘোষণা
ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন
কলকাতা প্রতিনিধি

অবশেষে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় ১ লাখ ৮৯ হাজার রুপির আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করলো ভারতের কেন্ত্রীয় সরকার৷

মূলত বিশ্ব মহামারির বিরুদ্ধে লড়াই করছে ভারত। এই মুহূর্তে দেশ জুড়ে চলছে লকডাউন। এর ফলে আর্থিক ক্ষেত্রে ব্যাপক প্রভাব পড়তে চলেছে। এই পরিস্থিতিতে দেশের মানুষের জন্য আর্থিক প্যাকেজের কথা ঘোষণা করলেন ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, সরকার চায় দেশের কোনও মানুষ যেন অভুক্ত না থাকে, সবাই যেন পর্যাপ্ত খাবার কিংবা প্রোটিন পায়, তার ব্যবস্থা করছে সরকার।

আগেই সস্তায় ৮০ কোটি ভারতীয়কে চাল ও আটা দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছিল।

এবার সীতারামন ঘোষণা করলেন, আগামী তিন মাস ওই ৮০ কোটি ভারতীয়কে প্রত্যেক মাসে পাঁচ কেজি করে চাল ও আটা বিনামূল্যে দেওয়া হবে। সঙ্গে এক কেজি করে ডাল দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে সস্তায় চাল, গম দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্রীয় সরকার।

বুধবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে দেশের ৮০ কোটি মানুষকে কম দামে খাদ্যশস্য দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এছাড়া, দেশের সাধারন জনগণের জন্য কমদামে মিলবে রেশন। ৮০ কোটি লোককে ২৭ রুপির কেজির গম ২ রুপি কেজি দরে আর ৩৭ টাকার চাল ৩ রুপি কেজি দরে দেওয়া হবে। এর জন্য সরকারের খরচ ধরা হয়েছে ১ লক্ষ ৮০ হাজার কোটি রুপি। এসব ছাড়াও বৃহস্পতিবার অতিরিক্ত পাঁচ এজি চাল, আটা দেওয়ার কথা হল।

একই সঙ্গে করোনা আক্রান্তের চিকিৎসায় যুক্ত চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ৫০ লক্ষ রুপির বীমা ঘোষণা করলেন দেশটির কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন৷ এই বীমার আওতায় আসবেন করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় নিযুক্ত চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী এবং প্যারামেডিক্যাল কর্মচারীরা৷ করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যারা কাজ করে চলেছেন তাদের প্রত্যেকের জন্য ৫০ লক্ষ রুপি করে বীমার ঘোষণা করা হয়েছে কেন্দ্র সরকারের তরফে৷

আগামী তিন মাসের জন্য এই বীমা কার্যকরী হবে৷ বৃহস্পতিবার ভারতের কেন্ত্রীয় অর্থমন্ত্রী জানান, আশা করি, এই সময়ের মধ্যে আমরা করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জিততে পারবো।

এদিন ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী জানান, একটি টাস্ক ফোর্স গঠন করা হয়েছে, যার নেতৃত্বে থাকবেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ প্রকল্পের' আওতায় ৮০ কোটি মানুষ বিনামূল্যেচাল ও গম পেতেন। এবার ভারতের জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা আইনে এপ্রিল থেকে গরিবদের আরও অতিরিক্ত ৫ কিলোগ্রাম গম এবং চাল দেওয়া হবে।

পরবর্তী ৩ মাস এক কিলোগ্রাম করে ডাল দেওয়া হবে। খাদ্য বণ্টনের ক্ষেত্রে সমাজে বিশেষভাবে সক্ষম নারী, জেলবন্দিদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

এদিন অর্থমন্ত্রী আরও ঘোষণা করেন, যে সব সংস্থার ১০০’র নিচে কর্মী এবং ১৫ হাজারের নীচে বেতন, কেন্দ্র তাদের প্রভিডেন্ট ফান্ডে ২৪ শতাংশ রুপি দেবে। মালিক এবং কর্মী দুপক্ষের রুপিই ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার দেবে।

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত