ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮ আশ্বিন ১৪২৮ আপডেট : ১১ মিনিট আগে

বিবিসির প্রতিবেদন

আগের ধারণার চেয়েও শক্তিশালী তালেবান

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ : ২৭ জুলাই ২০২১, ১৬:২২  
আপডেট :
 ২৭ জুলাই ২০২১, ১৬:৩১

আগের ধারণার চেয়েও  শক্তিশালী তালেবান
ছবি : বিবিসি
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২০০১ সালে ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর গত দুই মাসে আগের যে কোনো সময়ের তুলনায় আফগানিস্তানের অধিকতর এলাকা নতুন করে নিজেদের দখলে নিয়েছে তালেবান। বিগত ২০ বছর ধরে আফগানিস্তানের বিভিন্ন এলাকার নিয়ন্ত্রণ ছিলো সদা পরিবর্তনশীল। মঙ্গলবার বিবিসির এক বিশেষ প্রতিবেদনে এসব কথা উল্লেখ করা হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, আগে যেমনটা ধারণা করা হতো, এখন তারও চেয়ে বেশি শক্তিশালী তালেবান।

এতে বলা হয়, এটা দৃশ্যমান হচ্ছে যে, মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের কারণে গত কয়েক সপ্তাহে তালেবানরা (আফগানিস্তানের) সরকারি বাহিনীর কাছ থেকে অনেক জেলা পুনর্দখল করতে উৎসাহিত হয়েছে। বিবিসির গবেষণায় দেখা গেছে, আফগানিস্তানের উত্তর, উত্তর-পূর্ব ও মধ্যাঞ্চলের গজনি ও মাইদান ওয়ারদক প্রদেশসহ বিভিন্ন অঞ্চলে জঙ্গিদের শক্তিশালী অবস্থান রয়েছে। এ ছাড়াও তারা কুন্দুজ, হেরাত, কান্দাহার ও লস্কর গহ এর মতো বড় শহরগুলোর দিকে এগোচ্ছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০০১ সালের নভেম্বরে মার্কিন সেনা, ন্যাটো ও স্থানীয় মিত্র বাহিনীর সহায়তায় তালেবানদের ক্ষমতাচ্যুত করা হয়। এ গোষ্ঠিটি ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে হামলার জড়িত ওসামা বিন লাদেন ও অন্য আল কায়েদা নেতাদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই অঞ্চলে (আফগানিস্তানে) লাগাতার আন্তর্জাতিক উপস্থিতি থাকা, কোটি ডলারের সহায়তা ও আফগান সরকারের বাহিনীকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার পরও তালেবানরা পুনরায় সংগঠিত হয়েছে এবং দুর্গম এলাকায় অবস্থান করে শক্তি সঞ্চয় করেছে।

তালেবানদের মূল এলাকাগুলোর মধ্যে রয়েছে - হেলমন্দ, কান্দাহার, উরুজগান ও জাবুল প্রদেশ। এ ছাড়া উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের দক্ষিণ ফারিয়াব পাহাড় এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বাদাখশান পর্বতে তাদের শক্তিশালী অবস্থান রয়েছে।

২০১৭ সালে করা বিবিসির এক গবেষণায় দেখা গেছে, বেশ কয়েকটি জেলায় পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ ছিল তালেবানদের। কিন্তু খতিয়ে দেখা গেছে, দেশটির অনেক এলাকায়ই তারা সক্রিয়; সপ্তাহে বা মাসে তাদের হামলার সংখ্যাও বেড়েছে, যা এটাই প্রমান করে যে, আগের ধারণার চেয়েও তারা বেশি শক্তিশালী।

বাংলাদেশ জার্নাল / টিটি

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত