ঢাকা, রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮ আপডেট : ১ মিনিট আগে

চীনের চাপের কাছে নতিস্বীকার করবে না তাইওয়ান

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ : ১০ অক্টোবর ২০২১, ১৭:০৭  
আপডেট :
 ১০ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৩৭

চীনের চাপের কাছে নতিস্বীকার করবে না তাইওয়ান
তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েন। ছবি: রয়টার্স
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

চীনের চাপের কাছে তাইওয়ান নতিস্বীকার করবে না জানিয়েছেন স্বাধীনতাকামী দ্বীপটির প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েন। চীন-তাইওয়ান উত্তেজনার মধ্যে রোববার তিনি মন্তব্য করলেন।

বিবিসির খবরে বলা হয়, এদিন নিজেদের গণতান্ত্রিক পন্থার জীবনকে সুরক্ষিত রাখার অঙ্গীকারের কথাও জানিয়েছেন সাই ইং-ওয়েন। তাইওয়ানের জাতীয় দিবস উপলক্ষ্যে দেয়া বক্তব্যে প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েন বলেন, ‘আমরা যত বেশি অর্জন করি, চীনের কাছ থেকে ততবেশি চাপের মুখোমুখি হই।’

এর আগে শনিবার (গতকাল) বেইজিংয়ের গ্রেট হলে চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিন পিং তাইওয়ানকে চীনের সঙ্গে পুনঃএকত্রীকরণের অঙ্গীকারের কথা জানান। শি জিন পিং শান্তিপূর্ণভাবে পুনঃএকত্রীকরণের এ ঘোষণা দিলেও সংঘাতের আশঙ্কা উড়িয়ে দেননি।

চীনের প্রেসিডেন্টের এ বক্তব্যের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানায় তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট কার্যালয়। তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়, তাইওয়ানের ভবিষ্যৎ কেবল এর জনগণই নির্ধারণ করতে পারে।

গত বছর তাইওয়ানের জাতীয় নির্বাচনে চীনের বিরুদ্ধে সুর তুলে বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছিলের সাই ইং-ওয়েন। ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানায়, তাইওয়ানের জাতীয় দিবসের র‌্যালিতে প্রেসিডেন্ট সাই বলেন, তিনি প্রত্যাশা করেন যে, তাইওয়ান প্রাণালীর উত্তেজনা কাটবে।

সাই বলেন, তাইওয়ান বিবেচনা না করে কোনো কাজ করবে না। তিনি বলেন, ‘তবে এটা মনে করার কোনো কারণ নেই যে, তাইওয়ানের মানুষ নতিস্বীকার করবে।’

প্রেসিডেন্ট সাই বলেন, ‘আমরা অব্যহতভাবে আমাদের প্রতিরক্ষাকে জোরদার করতে থাকবো এবং আমাদের নিজেদের সুরক্ষিত রাখার জন্য অঙ্গীকার উচ্চারণ করবো, যাতে এটা নিশ্চিত করা যায় যে, চীন আমাদের জন্য যে পথ সামনে বিছিয়ে রেখেছে, সে পথে কেউ যেনো আমাদের ধাবিত করতে না পারে।’

তিনি বলেন, ‘এটা এ কারণে যে, যে পথ চীন আমাদের সামনে বাড়িয়ে দিয়েছে, সেটি যেমন তাইওয়ানের জনগণের জন্য স্বাধীন ও গণতন্ত্রের নয়, তেমনি এটা দুই কোটি ৩০ লাখ মানুষের সার্বভৌমত্বেরও নয়।’

চীন তাইওয়ানের জন্য ‘এক দেশ দুই পদ্ধতি’ নীতি প্রস্তাব দিয়েছে। এই নীতিতে হংকংকেও পরিচালনা করছে তারা। কিন্তু তাইওয়ানের প্রায় সব শীর্ষ দল এ প্রস্তাবের বিরোধীতা করে তা প্রত্যাখ্যান করেছে।

বাংলাদেশ জার্নাল / টিটি

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত