ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ আপডেট : ৯ মিনিট আগে

টেক্সাসে সিনাগগে জিম্মির ঘটনায় দু’জন গ্রেপ্তার

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ : ১৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৭:১০

টেক্সাসে সিনাগগে জিম্মির ঘটনায় দু’জন গ্রেপ্তার
সিনাগগে জিম্মি সংকটের ঘটনার পর টেক্সাসে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়। ছবি: বিবিসি।
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

টেক্সাসে সিনাগগে জিম্মিকারীকে ব্রিটিশ নাগরিক হিসেবে চিহ্নিত করেছে যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা বাহিনী। সোমবার বিবিসির খবরে বলা হয়, এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে যুক্তরাজ্য থেকে অন্তত দুই যুবককে আটক করা হয়।

স্থানীয় সময় শনিবার ছোট্ট শহর কলিভিলে জিম্মিকারী মালিক ফয়সাল আকরামকে হত্যার মধ্য দিয়ে ১০ ঘণ্টার জিম্মি নাটকের অবসান ঘটে। এফবিআই বলছে, ৪৪ বছরের ফয়সাল যুক্তরাজ্যের নাগরিক।

যুক্তরাজ্যের দক্ষিণ ম্যানচেস্টার থেকে সন্দেহভাজন ওই দুই যুবককে আটক করা হয়। তারা পুলিশি হেফাজতে রয়েছেন বলে গ্রেটার ম্যানচেষ্টার পুলিশ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।

কংগিগ্রেশন বেথ ইসরায়েল নামের সিনাগগে স্থানীয় সময় শনিবার সকাল ১১টার দিকে সাবাথের প্রার্থনার সময় ঘটনার সূত্রপাত হয়।

ফেসবুকে চলা স্ট্রিমিংয়ের অডিওতে এক ব্যক্তিকে চেঁচিয়ে বলতে শোনা যায়, ‘আমার বোনকে ফোন দিন। আমি মরতে চলেছি।’ এর কিছুক্ষণ পরই আশপাশ থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেয়া হয়।

মার্কিন সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়, ডালাসের উপকণ্ঠের ওই সিনাগগের যাজকসহ চার ব্যক্তিকে জিম্মি করা হয়েছিল। জিম্মি সংকটের অবসানের আগে বিস্ফোরণ ও গুলির শব্দ শোনা যায়।

পরে উদ্ধারকারী দল সিনাগগের ভেতরে ঢুকতে সক্ষম হন। এ সময় জিম্মিকারী ফয়সাল গুলিতে নিহত হন। ফয়সালের ভাই গুলবর তার মৃত্যুর খবর ফেসবুকে নিশ্চিত করেছেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন জিম্মির ঘটনাটিকে ‘সন্ত্রাসী কাজ’ বলে অভিহিত করেছেন।

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস এ হামলাকে ‘সন্ত্রাসবাদ এবং ইহুদিবিদ্বেষী’ ঘটনা বলে নিন্দা জানিয়েছেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, আফিয়া সিদ্দীকির মুক্তি চেয়েছিলেন জিম্মিকারী ফয়সাল। আফিয়া একজন পাকিস্তানি স্নায়ুরোগ বিষেশজ্ঞ। বর্তমানে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে ৮৬ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করছেন।

আফগানিস্তানে বন্দি থাকার সময় যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক কর্মকর্তাদের হত্যাচেষ্টার দায়ে তাকে ওই সাজা দেয়া হয়েছিল।

এ ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রে ইহুদিদের মধ্যে উদ্বেগ সৃষ্টি করেছে। মার্কিন পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নিহত ফয়সালের কাছে কোনো ধরনের বিস্ফোরক পাওয়া যায়নি।

বাংলাদেশ জার্নাল/ টিটি

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত