লক ডাউনে পার্টি: স্যু গ্রে’র রিপোর্টে বরিসকে দোষারোপ

প্রকাশ : ২৫ মে ২০২২, ১৯:০৮ | অনলাইন সংস্করণ

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বরিস জনসন।

লকডাউন-লঙ্ঘন নিয়ে যুক্তরাজ্যের সরকারি দলগুলোর একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের অফিসে নিয়ম ভাঙার একটি ‘সংস্কৃতির’ জন্য অবশ্যই শীর্ষস্থানীয়দের সাথে অবসরে যেতে হবে।

বুধবার ‘পার্টিগেট’ কেলেঙ্কারি নিয়ে জ্যেষ্ঠ বেসামরিক কর্মচারী স্যু গ্রে-এর দীর্ঘ প্রতীক্ষিত প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয়। খবর বিবিসির।

এতে বলা হয়, এমন একটি সংস্কৃতির জন্য ‘জ্যেষ্ঠ নেতৃত্ব’কে অবশ্যই দায় নিতে হবে। এর কারণ হিসেবে বলা হয়, তারা এ ধরণের ঘটনা ঘটতে দিয়েছেন, ‘যার অনুমোতি দেয়াটা তাদের ঠিক হয়নি।’

গ্রে ২০২০ ও ২০২১ সালে জনসন এবং তার সহকর্মীদের অংশগ্রহণে ১৬টি মদের পার্টির তদন্ত করেছেন। এ সময়ে যুক্তরাজ্যের সাধারণ মানুষ জনসনের রক্ষণশীল সরকার দ্বারা আরোপিত করোন ভাইরাস বিধিনিষেধের অধীনে সামাজিকীকরণ থেকে নিষিদ্ধ ছিলেন।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর (বরিস জনসন) ডাউনিং স্ট্রিট অফিসের প্রসঙ্গ টেনে গ্রে বলেন, ‘নম্বর ১০ নেতৃত্ব ও বিচারে ব্যর্থ’ ছিল।

এরই মধ্যে পার্টিগেট ক্যালেঙ্কারির জেরে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে আনুষ্ঠানিক ক্ষমা চেয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। তবে এখনও তার পদত্যাগের দাবি জানিয়ে আসছেন বিরোধীরা।

বাংলাদেশ জার্নাল/টিটি