প্রতিদ্বন্দ্বী দেশগুলোর চেয়ে রাশিয়ার অস্ত্র অনেক উন্নত: পুতিন

প্রকাশ : ১৬ আগস্ট ২০২২, ১২:৫৯ | অনলাইন সংস্করণ

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ছবি: সংগৃহীত

রাশিয়ার রাজধানী মস্কোর কাছে অস্ত্র প্রদর্শনীর একটি অনুষ্ঠানে সোমবার (১৫ আগস্ট) রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন রাশিয়ার ও সর্বশেষ অস্ত্রগুলো প্রতিদ্বন্দ্বী দেশগুলোর তুলনায় অনেক অত্যাধুনিক ও উন্নত।  তিনি আরও জানান, রাশিয়া বিশ্বব্যাপী মিত্রদের কাছে উন্নত অস্ত্র বিক্রি করতে এবং সামরিক প্রযুক্তির উন্নয়নে সহযোগিতা করতে প্রস্তুত। 

মঙ্গলবার এই তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এবং সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা।

ইউক্রেনে প্রায় ছয় মাস ধরে সামরিক অভিযান চললেও দেশটির দুটি বৃহত্তম শহর থেকে পিছু হটতে বাধ্য হয়েছে রুশ বাহিনী। এমনকি তীব্র আক্রমণ চালিয়েও ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে রাশিয়ার সাফল্য বেশ ধীর গতিতেই আসছে।

কিন্তু এরপরও অস্ত্র প্রদর্শনীতে ভাষণ দেওয়ার সময় পুতিন জোর দিয়ে বলছেন, রাশিয়ার অস্ত্র প্রতিদ্বন্দ্বী দেশগুলোর হাতে থাকা অস্ত্রের তুলনায় অনেক উন্নত। এমনকি প্রতিদ্বন্দ্বী দেশগুলোর তুলনায় রাশিয়ান অস্ত্রশস্ত্র কয়েক বছর এগিয়ে আছে বলেও দাবি করেন পুতিন।

ওই অস্ত্র প্রদর্শনীতে পুতিন বলেন, লাতিন আমেরিকা, এশিয়া এবং আফ্রিকার দেশগুলোর সাথে দৃঢ় সম্পর্ক প্রত্যাশা করে রাশিয়া। একইসঙ্গে সেখানে ছোট অস্ত্র থেকে শুরু করে সাঁজোয়া যান এবং কামান, যুদ্ধ বিমান এবং ড্রোনের মত অস্ত্র দিতে প্রস্তুত রয়েছে মস্কো। 

তিনি আরও বলেন, রাশিয়া তার মিত্রদের নতুন উচ্চ-নির্ভুল অস্ত্র এবং রোবোটিক্স  সিস্টেম অফার করবে। এসব অস্ত্রগুলোর মধ্যে বেশিরভাগই তাদের বিদেশি সমকক্ষদের হাতে থাকা অস্ত্র থেকে কয়েক দশক পর্যন্ত এগিয়ে রয়েছে । এমনকি রাশিয়ার এসব অস্ত্র কৌশলগত এবং প্রযুক্তিগত বৈশিষ্ট্যের দিক থেকে অন্য দেশগুলোর চেয়ে উল্লেখযোগ্য ভাবে উচ্চতর।

উল্লেখ্য, বছরে প্রায় ১৫ বিলিয়ন ডলারের অস্ত্র বিক্রির মাধ্যমে অস্ত্র রপ্তানিতে যুক্তরাষ্ট্রের পরে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে রাশিয়া, যা বিশ্ব অস্ত্র রপ্তানি বাজারের প্রায় পঞ্চমাংশ। স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইন্সটিটিউট অনুসারে, ২০১৭-২০২১ সাল পর্যন্ত, রাশিয়ার অস্ত্র বিক্রয়ের ৭৩ শতাংশ মাত্র চারটি দেশে গেছে। দেশগুলো হল- ভারত, চীন, মিশর এবং আলজেরিয়া ৷

বাংলাদেশ জার্নাল/এমআর