ঢাকা, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ আপডেট : ১ মিনিট আগে
শিরোনাম

জ্বালানি সংকটে থমকে গেছে পাকিস্তানের ট্রেন পরিষেবা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:৫৩  
আপডেট :
 ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:৫৮

জ্বালানি সংকটে থমকে গেছে পাকিস্তানের ট্রেন পরিষেবা
পাকিস্তানের একটি রেলস্টেশন। ছবি: সংগৃহীত
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভয়াবহ বন্যায় বিপর্যস্থ পাকিস্তানে ইতোমধ্যেই জ্বালানি ও খাদ্যপণ্যের অভাব দেখা দিয়েছে। এমন সংকট কালে এবার জানা গেছে, জ্বালানির অভাবে প্রায় থমকে গেছে পাকিস্তানের ট্রেন পরিষেবা।

পাকিস্তানের সংবাদ সংস্থা ‘দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন’ এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, একাধিক কারণে পাকিস্তানে রেল পরিষেবা বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ভয়াবহ বন্যার প্রভাব। গত কয়েক সপ্তাহে দেশজুড়ে আসা প্রবল বন্যায় জোর ধাক্কা খেয়েছে পাকিস্তান রেল (পিআর)। বন্যা ফলে যাত্রীর অভাবে এর আয় প্রায় শূণ্যে নেমে এসেছে। প্রতিমাসে আয়ের যে লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে, তা কিছুতেই পূরণ হচ্ছে না। বেশকিছু স্টেশনে ডিজেলের অভাব চরমে। বন্যার জন্য পরিকাঠামোয় যে ক্ষতি হয়েছে তার প্রভাবও পড়েছে। ফলে দেশটির ট্রেন নেটওয়ার্ক যে স্বাভাবিক ছন্দে চলে তা বিঘ্নিত হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত মঙ্গলবার পর্যন্ত লাহোরের ইঞ্জিন শেডে মাত্র ৯০ হাজার লিটার ডিজেল ছিল। ফয়সলাবাদ স্টেশনে মাত্র একদিনের চলার মতো ডিজেল রয়েছে। মুলতান ও শুক্কুর ডিভিশনে পরিস্থিতি আরও খারাপ।

দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন আরও জানিয়েছে, বর্তমানে লাহোর ও রাওয়ালপিন্ডির মধ্যে মাত্র একটি ট্রেন চলছে পেশোয়ার ও সিন্ধ প্রদেশের রহরি স্টেশনের মধ্যেও চলছে একটি মাত্র ট্রেন। এছাড়াও কয়েকটি মালবাহী ট্রেন রেলওয়ে নেটওয়ার্কে চলছে।

এদিকে,ডিজেল সংকটের কথা অস্বীকার করেছেন পাকিস্তান রেলের অতিরিক্ত মহাব্যবস্থাপক আমির বালোচ। তিনি জানিয়েছেন একটি বেসরকারি সংস্থা থেকে ডিজেল কেনা হচ্ছে। প্রয়োজন মেটাতে ভবিষ্যতেও বেসরকারি সংস্থা থেকে ডিজেল কেনা হতে পারে।

উল্লেখ্য, বিগত কয়েক মাস ধরেই পাকিস্তানের অর্থনীতি ক্রমেই নিম্নমুখী। ডলারের তুলনায় দেশটির মুদ্রার দামে রেকর্ড পতন হয়েছে। শুক্রবার প্রতি ডলার কিনতে ব্যয় হচ্ছে ২০০ পাকিস্তানি রুপি।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমআর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত