ঢাকা, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ আপডেট : ২ মিনিট আগে
শিরোনাম

ইউক্রেনে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের পরামর্শ চেচেন নেতা কাদিরভের

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ : ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৩:৩২  
আপডেট :
 ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৩:৪০

ইউক্রেনে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের পরামর্শ চেচেন নেতা কাদিরভের
চেচেন নেতা রমজান কাদিরভ। ছবি: সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ইউক্রেনে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের ঘনিষ্ঠ মিত্র রাশিয়ার চেচনিয়া অঞ্চলের প্রধান রমজান কাদিরভ। তবে তুলনামূলক কম ধ্বংসাত্মক পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। পূর্ব ইউক্রেনের শক্ত ঘাঁটি লাইম্যানে রুশ বাহিনী ব্যর্থতার পর এই আহ্বান জানান কাদিরভ।

শনিবার পূর্ব ইউক্রেনের শক্ত ঘাঁটি লাইম্যানে পরাজয়ের বিষয়টি রাশিয়ার নিশ্চিত করার পর রুশ সেনাদের ব্যর্থতার জন্য বাহিনীর শীর্ষ কমান্ডারদের নিন্দা করেছেন কাদিরভ।

এক টেলিগ্রাম বার্তায় তিনি লিখেছেন, আমার ব্যক্তিগত মত হচ্ছে, সীমান্তে সামরিক আইন ঘোষণার আগে আরও কঠোর ব্যবস্থা নেয়া উচিত এবং কম ধ্বংসাত্মক পারমাণবিক অস্ত্রের ব্যবহার করা।

কাদিরভ তার বার্তায় লাইমানে যুদ্ধরত রাশিয়ান বাহিনীর কমান্ডার কর্নেল-জেনারেল আলেকজান্ডার ল্যাপিনকে ‘মাঝারিমানের’ বলে বর্ণনা করেছেন এবং পরামর্শ দিয়েছেন তার পদক ছিনিয়ে নিয়ে যুদ্ধক্ষেত্রে পাঠানো উচিত।

কাদিরভ আরও বলেছেন যে দুই সপ্তাহ আগে তিনি রাশিয়ার জেনারেল স্টাফের প্রধান ভ্যালেরি গেরাসিমভের সাথে লাইমানে পরাজয়ের সম্ভাবনা উত্থাপন করেছিলেন, কিন্তু গেরাসিমভ এই ধারণাটি উড়িয়ে দিয়েছিলেন।

রাশিয়া ডোনেটস্ক অঞ্চলের উত্তরে তার কার্যক্রমের জন্য লজিস্টিক এবং ট্রান্সপোর্ট হাব হিসেবে লাইম্যানকে ব্যবহার করেছিল। গত মাসে উত্তর-পূর্ব খারকিভ অঞ্চলে পাল্টা আক্রমণের পর ইউক্রেনের সবচেয়ে বড় দখল এটি।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন গত শুক্রবার ইউক্রেনের লুহানস্ক, দোনেতস্ক, খেরসন ও জাপোরিঝিয়াকে রাশিয়ায় অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন। আর এর পরদিনই ইউক্রেনের বাহিনীর হাতে লাইম্যান শহরের নিয়ন্ত্রণ হারায় রুশ সেনারা।

উল্লেখ্য, রাশিয়ার কাছে বিশ্বের বৃহত্তম পারমাণবিক অস্ত্রাগার রয়েছে, যার মধ্যে স্বল্প- ধ্বংসাত্মক কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্র রয়েছে যা বিরোধী সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে মোতায়েন করার জন্য ডিজাইন ও প্রস্তুত করা হয়েছে।

এদিকে, কাদিরভ ছাড়াও পুতিনের আরো কয়েকজন মিত্র এর আগে তাকে ইউক্রেইনে পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছিলেন।

রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভসহ অন্যান্য শীর্ষ পুতিন মিত্ররা ইঙ্গিত দিয়েছেন যে, রাশিয়াকে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করতে হতে পারে। তবে কাদিরভের আহ্বান অন্যদের তুলনায় সবচেয়ে জরুরি এবং স্পষ্ট।

এছাড়া পুতিন গত সপ্তাহে নিজেও বলেছিলেন, তিনি সমস্ত উপলব্ধ উপায়ে রাশিয়ার "আঞ্চলিক অখণ্ডতা" রক্ষা করার জন্য প্রস্তুত রয়েছেন।

এদিকে ওয়াশিংটন বলেছে যে তারা পারমাণবিক অস্ত্রের যেকোনো ব্যবহারে নিষ্পত্তিমূলক জবাব দেবে।

উল্লেখ্য, ২০০৭ সাল থেকে চেচনিয়া প্রজাতন্ত্রের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ মিত্র হিসেবে পরিচিত রমজান কাদিরভ। চেচনিয়ার ককেশাস অঞ্চলের প্রভাবশালী শাসক কাদিরভকে অশান্ত চেচনিয়ার শাসনভার তুলে দিয়েছিলেন পুতিনই।

এছাড়াও ইউক্রেন যুদ্ধের শুরুতেই রুশ বাহিনীর পক্ষে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। ইউক্রেন যুদ্ধে গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার জন্য চলতি বছরের মার্চে পুতিনের কাছ থেকে লেফটেন্যান্ট-জেনারেল পদে পদোন্নতি পান কাদিরভ।

সূত্র: রয়টার্স, ইয়ন

বাংলাদেশ জার্নাল/এমআর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত