ঢাকা, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ আপডেট : ৫১ মিনিট আগে
শিরোনাম

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এবার ধর্ষণের মামলা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ : ২৫ নভেম্বর ২০২২, ১৭:২৮  
আপডেট :
 ২৫ নভেম্বর ২০২২, ১৭:৩৪

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এবার ধর্ষণের মামলা
যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবি: সংগৃহীত
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ১৯৯০-এর দশকে তাকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেছেন মার্কিন লেখক ও কলামিস্ট ই জিন ক্যারল। বৃহস্পতিবার একটি নতুন রাষ্ট্রীয় আইন কার্যকর হওয়ার কয়েক মিনিট পরে নিউইয়র্কের একটি আদালতে মামলাটি দায়ের করেন তিনি। যেটি যৌন সহিংসতার শিকার ব্যক্তিদের কয়েক দশক আগে ঘটে যাওয়া ঘটনার বিরুদ্ধে মামলা করার অনুমতি দেয় ৷

বৃহস্পতিবার ক্যারলের আইনজীবী আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন, যেখানে উল্লেখ করা হয়েছে, ধষণের ফলে শারীরিক যন্ত্রণা, মানসিক ক্ষতি, এবং মাণহানির জন্য অনির্দিষ্ট ক্ষতিপূরণ এবং শাস্তি চেয়েছেন ক্যারল।

এরআগে ২০১৯ সালের একটি বইতে প্রথমবার ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছিলেন ক্যারল। সেখানে তিনি দাবি করেছেন, ট্রাম্প তাকে ১৯৯৫ বা ১৯৯৬ সালে ম্যানহাটনের একটি বিলাসবহুল ডিপার্টমেন্ট স্টোরের ড্রেসিংরুমে ধর্ষণ করেছিলেন।

ট্রাম্প তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। বইটির অভিযোগের জবাব দিয়ে বলেছিলেন এটি কখনই ঘটতে পারে না কারণ ক্যারল ‘আমার ধরণের নয়’।

ট্রাম্পের এই মন্তব্যের পর তার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করেন ক্যারল। কিন্তু সেই মামলাটি আপিল আদালতে খারিজ হয়ে যায় কারণ প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন করা মন্তব্যের জন্য আইনি মামলা থেকে সুরক্ষিত ছিলেন ট্রাম্প।

মার্কিন লেখক ও কলামিস্ট ই জিন ক্যারল

এছাড়াও অতীতে, ক্যারলকে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে কথিত ধর্ষণের মামলা করতে বাধা দেয়া হয়েছিল কারণ ঘটনার পর থেকে অনেক বছর কেটে গেছে। তবে নিউইয়র্কের নতুন আইনে, যৌন সহিংসতার শিকার ব্যক্তিদের কয়েক দশক আগে ঘটে যাওয়া ঘটনার বিরুদ্ধে মামলা করার অনুমতি দেয় ৷ এই সুযোগ কাজে লাগান ক্যারল।

এদিকে প্রতিক্রিয়ায় এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, ক্যারল সম্পূর্ণভাবে একটি গল্প তৈরি করেছেন, যে আমি তার সাথে নিউইয়র্ক সিটি ডিপার্টমেন্ট স্টোরে দেখা করেছি এবং কয়েক মিনিটের মধ্যেই তাকে ধর্ষণ করেছি। এটি একটি প্রতারণা এবং একটি মিথ্যা, ঠিক অন্য সমস্ত প্রতারণার মতো যা গত সাত বছর ধরে আমার উপর চালানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, আদালত যদি শেষ পর্যন্ত ধরে নেয়, ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ক্যারলের ধর্ষণের অভিযোগ সত্য, তবে আগামী মার্কিন প্রেসিডেন্ট নিবার্চনে ট্রাম্পের প্রার্থী হওয়ার পথ কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।

সূত্র: বিবিসি, সিএনবিসি

বাংলাদেশ জার্নাল/এমআর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত