ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, ১৭ মাঘ ১৪২৯ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে
শিরোনাম

সমকামিতা নিষিদ্ধ করলো রাশিয়ার পার্লামেন্ট

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ : ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০১:১৩  
আপডেট :
 ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০১:৩৬

সমকামিতা নিষিদ্ধ করলো রাশিয়ার পার্লামেন্ট
ছবি: সংগৃহীত
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সমকামিতা নিষিদ্ধ করে একটি আইন পাস করেছে রাশিয়ার পার্লামেন্ট। আইন অনুযায়ী শুধু সমকামিতাকেই নিষিদ্ধ করেনি দেশটি, সমকামিতার প্রচার এবং প্রদর্শনীও কঠোরভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার পাশ করা এ আইন অমান্যকারীদের জন্য সাজাও নির্ধারণ করা হয়েছে।

আইনটি পাস করার পাশাপাশি রুশ আইনপ্রণেতারা সমকামিতার প্রচারকে পশ্চিমী ষড়যন্ত্র হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন। তারা জানান, পশ্চিমা অপসংস্কৃতি থেকে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে রক্ষার জন্য কঠোর হাতে সমকামী এবং এর অনুসারীদের দমন করা হবে।

তবে আইনটি প্রয়োগ করতে এখনো পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ এবং রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের অনুমোদনের প্রয়োজন। যদিও সমকামিতা ইস্যুতে বরাবরই কঠোর অবস্থানের কথা বলেছেন পুতিন। সুতরাং এই আইন যে দ্রুতই রাশিয়ায় বাস্তবায়িত হতে চলেছে তা স্পষ্ট।

নতুন আইনের অধীনে, যে কোনও পদক্ষেপ বা তথ্য যা সমকামিতার প্রচারের প্রচেষ্টা হিসাবে বিবেচিত হয়, হতে পারে তা প্রকাশ্যে, অনলাইনে বা চলচ্চিত্র, বই বা বিজ্ঞাপন, যেকোনো উপায়ে সমকামিতার বিন্দুমাত্র প্রচারণার ছোঁয়া থাকলেই তা দন্ডনীয় অপরাধ।

এই আইন অমান্য করলে সর্বোচ্চ ৪ লাখ রুবল জরিমানা ও এলজিবিটিকিউ কার্যকলাপে লিপ্ত বিদেশি নাগরিককে ১৫ দিন হাজতবাসের পাশাপাশি রাশিয়া থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পূর্বে, আইনটি শুধু শিশুদের লক্ষ্য করে এলজিবিটি লাইফস্টাইলের প্রচারকে অবৈধ ঘোষণা করেছিল। নতুন প্রস্তাবে শিশুদের প্রতি এলজিবিটি আচরণের ‘প্রদর্শন’ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

আইন প্রণেতারা বলছেন, তারা উদারপন্থী পশ্চিমের বিরুদ্ধে ‘রাশিয়ান বিশ্বের’ ঐতিহ্যগত মূল্যবোধকে রক্ষা করছেন বলে তারা তাদের ধ্বংস করতে বদ্ধপরিকর।

কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যেই সমকামীদের অধিকার আদায়ের মিছিল বন্ধ করতে এবং সমকামী অধিকার কর্মীদের আটক করতে বিদ্যমান আইন ব্যবহার করেছে৷ অধিকার গোষ্ঠীগুলি বলছে, নতুন আইনটির উদ্দেশ্য হল তথাকথিত ‘অপ্রথাগত’ এলজিবিটি জীবনধারা যা সমকামী নারী, সমকামী পুরুষ, উভকামী এবং ট্রান্সজেন্ডারদের দ্বারা চর্চা করা হয় তা সম্পূর্ণরূপে জনজীবন থেকে দূরে সরিয়ে দেয়া।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত