ঢাকা, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯, ১০ চৈত্র ১৪২৬ অাপডেট : ৮ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:৪৭

প্রিন্ট

বাড়ি যেতে পারছেন না শবরীমালায় প্রবেশকারী দুই নারী

বাড়ি যেতে পারছেন না শবরীমালায় প্রবেশকারী দুই নারী
বিন্দু অস্মিনি ও কনক দুর্গা
কলকাতা প্রতিনিধি

ভারতে দীর্ঘদিনের প্রথা ভেঙে কেরালা রাজ্যের শবরীমালা মন্দিরের মন্দিরে প্রবেশ করার অপরাধে বিক্ষোভকারীদের হুমকির মুখে পড়েছেন বিন্দু অস্মিনি এবং কনক দুর্গা নামে দুই নারী।

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মতো পুলিশি প্রহরায় সকলের অগোচরে তারা শবরীমালা মন্দিরে ঢুকেছিলেন ঠিকই। কিন্ত তারপর থেকে তারা বাড়িতে ফিরতে পারছেন না। গত ১০ দিন ধরে তারা গোপন স্থানে আত্মগোপন করে আছেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট রায় দিয়েছিল যে শবরীমালায় সব বয়সী নারীরাই প্রবেশ করতে পারবেন। যা নিয়ে উত্তাল হয়ে ওঠে গোটা কেরালা। এই মন্দিরে ঋতুমতি নারীদের প্রবেশ নিয়ে রাজ্য সরকারের সঙ্গে রীতিমতো লড়াই চলছে মন্দির কর্তৃপক্ষসহ বিভিন্ন হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের।

কেরালার কান্নুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪০ বছরের আইন অধ্যাপিকা বিন্দু আম্মিনি এবং ৩৯ বছরের সরকারি আধিকারিক কনক দুর্গা জানিয়েছেন, তারা হুমকির মুখে পড়েও মন্দিরে ঢোকার দুঃসাহসিকতা দেখাতে পেরেছেন।

কনক দুর্গা জানান, আমাদের ফিরে আসতে বলা হয়েছিলো। প্রথমে ‌ সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পর গত ২৪ ডিসেম্বর শবরীমালায় ঢুকতে ব্যর্থ হন তারা। কিন্ত নতুন বছরের ২ জানুয়ারি তারা অবশেষে মন্দিরের চিরাচরিত প্রথা ভেঙে মন্দিরে ঢুকতে সফল হন।

বিন্দু জানান, ‌আমরা কোনও ভয় অনুভব করিনি। আমাদের শুধু একটাই লক্ষ্য ছিল। আমরা শবরীমালায় প্রবেশ করতে চেয়েছিলাম।

তবে, শবরীমালায় বিন্দু এবং কনক দুর্গা প্রবেশের পরই কেরলে বিক্ষোভ শুরু হয়। এই দুই নারী বর্তমানে কোথায় রয়েছেন তা কেউ জানে না। তবে তারা সুরক্ষিত আছেন বলে জানিয়েছেন। মনে করা হচ্ছে, কোচির কোথাও ওই দুই নারী গা–ঢাকা দিয়ে রয়েছেন।

তবে বিক্ষোভকারীদের হুমকির মুখেও প্রশাসনের ওপর আস্থা রেখেছেন ওই দুই নারী। আগামী সপ্তাহেই সম্ভবত তারা বাড়ি ফিরতে পারবেন বলে মনে করছেন।

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close