ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯, ৪ আষাঢ় ১৪২৬ অাপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ১১ জুন ২০১৯, ১৪:৪১

প্রিন্ট

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘বায়ু’

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘বায়ু’
অনলাইন ডেস্ক

গত মাসের গোড়ার দিকে ভারত ও বাংলাদেশে আঘাত হেনেছিলো ঘূর্ণিঝড় ফণী। এবার ভারতের গুজরাট রাজ্যের উপকূলীয় এলাকাগুলোর দিকে এগিয়ে আসছে নতুন ঘূর্ণিঝড় ‘বায়ু’। আরো ৪৮ ঘণ্টা পর অর্থাৎ বৃহস্পতিবার নাগাদ ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার বেগে আঘাত হানবে আরব সাগরে গভীর নিম্নচাপের ফলে সৃষ্ট এই ঘূর্ণিঝড়টি।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ‘আনন্দবাজর’বলছে, ঘূর্ণিঝড় ‘বায়ু’সৃষ্টি হয়েছে লক্ষদ্বীপের কাছে। দ্রুত তা এগিয়ে চলেছে উত্তর দিকে। এটি ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিয়ে আর দু’দিনের মধ্যে আছড়ে পড়বে গুজরাট উপকূলে। বৃহস্পতিবার যার গতিবেগ হবে মৌসম ভবন সূত্রে এই খবর পাওয়া গিয়েছে।

ওই ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়ের ফলে বৃহস্পতিবার গুজরাট উপকূলে থেকে প্রবল বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সঙ্গে থাকবে তুমুল ঝোড়ো হাওয়া। এই ঝড় মোকাবেলায় ব্যাপক ব্যবস্থা নিয়েছে রাজ্য সরকার।

গুজরাট উপকূলে সৌরাষ্ট্র ও কচ্ছের পোরবন্দর থেকে মাহুবা পর্যন্ত এলাকায় জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী (এনডিআরএফ) নামানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। সতর্ক থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও উপকূলীয় রক্ষী বাহিনীকেও। মঙ্গল ও বুধবার সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে কেরালা ও কর্নাটক উপকূল এবং লক্ষদ্বীপের মৎস্যজীবীদের। আর বুধ ও বৃহস্পতিবার সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে গুজরাত উপকূলের মৎস্যজীবীদের।

ভারতের আবহাওয়া দপ্তর বলছে, আরব সাগরে লক্ষদ্বীপের উপকূলে আমিনিদিবিতে উৎপত্তি হয়েছে ঘূর্ণিঝড় বায়ুর। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই তা আরও শক্তিশালী হয়ে উত্তর দিকে অর্থাৎ গুজরাট রাজ্যের দিকে ছুটতে শুরু করবে। বৃহস্পতিবার নাগাদ পোরবন্দর থেকে মাহুবার মধ্যে দিয়ে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়টি আছড়ে পড়বে গুজরাত উপকূলে। তখন ঝড়ের গতিবেগ থাকবে ঘণ্টায় গড়ে ১১০ থেকে ১২০ কিলোমিটার। বৃহস্পতিবার ভোর নাগাদ এর গতিবেগ বেড়ে প্রতি ঘণ্টায় ১৩৫ কিলোমিটারও হতে পারে।

আবহাওয়া দপ্তর আরো জানাচ্ছে, মঙ্গলবার থেকেই লক্ষদ্বীপের আমিনিদিবি থেকে আরব সাগর ধরে পূর্ব-মধ্য দিকে এগুতে থাকবে ঘূর্ণিঝড় বায়ু। ওইদিন সন্ধ্যা নাগাদ এর গতিবেগ ঘণ্টায় ৯০ থেকে ১০০ কিলোমিটারে গিয়ে দাঁড়াবে। ঝড়ের ফলে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের আশঙ্কা রয়েছে লক্ষদ্বীপ, কেরালা, কর্নাটক ও মহারাষ্ট্রের দক্ষিণ উপকূলে।

বুধবার বায়ুর গতিবেগ বেড়ে হবে ঘণ্টায় ১১০ থেকে ১২০ কিলোমিটার। এরপর আরব সাগরের পূর্ব-মধ্য দিক থেকে উত্তর-পূর্ব দিকে আগাতে থাকবে। বুধবার সকাল থেকেই ঝড়ের দাপট টের পেতে শুরু করবে গুজরাত উপকূলীয় এলাকার লোকজন। এর প্রভাবে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৭০ কিলোমিটার গতিবেগের ঝড়োহাওয়া বয়ে যেতে পারে মহারাষ্ট্র উপকূলের ওপর দিয়ে।

প্রসঙ্গত, ভারতে প্রায়ই এ জাতীয় ঘূর্ণিঝড় আঘাত হেনে থাকে। গত মাসের গোড়ার দিকে ভারতের উড়িশ্যা রাজ্যে আঘাত হেনেছিলো ঘূর্ণিঝড় ফণী। এতে বেশ কয়েকজন নিহত এবং প্রচুর ক্ষয়ক্ষতি হয়েছিল।

সূত্র: আনন্দবাজার

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close