ঢাকা, সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬ অাপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৯, ২১:১১

প্রিন্ট

ট্রাম্পের ‘সেক্স পার্টি’

ট্রাম্পের ‘সেক্স পার্টি’
অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হবার পর থেকে নারীঘটিত কেলেঙ্কারি যেন পিছু ছাড়ছেই না ট্রাম্পের। তার বিরুদ্ধে নারীদের প্রতি অসদাচরণের অভিযোগ রয়েছে অহরহ। তবে এবারকার ঘটনার কেন্দ্রে তার একসময়ের বন্ধু জেফ্রি এপস্টিন।

কিশোরী মেয়েদের সঙ্গে অর্থের বিনিময়ে যৌন সম্পর্ক স্থাপনের অভিযোগে তিনি এখন কারাগারে।

অভিযোগ উঠেছে, ধনকুবেরদের বাগে আনতে কিশোরী মেয়েদের দিয়ে সেক্স পার্টি দিতেন তিনি। আর তার একজন নিয়মিত সদস্য ছিলেন ট্রাম্প। ১৯৯২ সালে এমন একটি পার্টিতে মোট ২৮ জন কিশোরীকে জড়ো করা হয়েছিল, তাতে উপস্থিত ছিলেন মোটে দু্ইজন। তারা হলেন-এপস্টিন ও ট্রাম্প।

এসব অভিযোগ নিয়ে মন্তব্যও করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেছেন, এপস্টিনকে তেমন একটা চেনেন না। ফ্লোরিডার পাম বিচে সবাই তাকে যেমন চিনত, তিনিও তেমনি চিনতেন।

ট্রাম্প আরও বলেন, গত ১৫ বছরে তার সঙ্গে এপস্টিনের কোনো যোগাযোগ নেই।

যুক্তরাষ্ট্রেরর প্রভাবশালী দৈনিক ‘নিউইয়র্ক টাইমস’ তাদের এক প্রতিবেদনে বলেছে ট্রাম্পের কথাটি সত্য। একসঙ্গে ব্যবসা করার সময় টাকা-পয়সার ঝামেলা হওয়ায় দুই জনের মুখ-দেখাদেখি বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।

সংবাদমাধ্যমটি আরও বলছে, ২০০২ সালে ট্রাম্প ও এপস্টিন যখন বন্ধু ছিলো। তখন বন্ধু সম্পর্কে ট্রাম্প বলেছিলেন, ‘এপস্টিন একজন চমৎকার মানুষ এবং খুবই মজার মানুষ। লোকে বলে, আমার মতো ওর কম বয়সী সুন্দরী মেয়েদের ব্যাপারে বিশেষ আকর্ষণ রয়েছে।’

ট্রাম্পের জীবনীকার হিসেবে পরিচিত সাংবাদিক ও লেখক মাইকেল গ্রস জানিয়েছেন, নব্বইয়ের দশকে ট্রাম্প ঘরভর্তি মেয়েদের নিয়ে তার ধনী বন্ধুদের জন্য পার্টি দিতেন। এসব মেয়ের অধিকাংশই মডেল হওয়ার জন্য ট্রাম্পের শরণাপন্ন হতো।

তিনি আরও জানিয়েছেন, এসব পার্টিতে কোকেনের ব্যবহার হতো দেদার, আর সেখানে ট্রাম্পের ব্যবহার ছিল ‘একজন পশুর মতো’।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close