ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬ আপডেট : ২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:১২

প্রিন্ট

কুড়াল দিয়ে কর্মীর মাথা কাটার হুমকি মুখ্যমন্ত্রীর

কুড়াল দিয়ে কর্মীর মাথা কাটার হুমকি মুখ্যমন্ত্রীর
অনলাইন ডেস্ক

ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টরেরবরাবারই বিতর্কিত কথাবার্তা বলতে ভালোবাসেন। এ নিয়ে বিভিন্ন সময়ে নিন্দার মুখেও পড়েছেন বিজেপি দলের এই নেতা। কিন্তু কথায় বলে না, ‘কয়লা ধুলেও ময়লা যায়না’। এবার কুড়াল উঁচিয়ে দলেরই এক নেতার মাথা কেটে নেওয়ার হুমকি দিয়েছেন তিনি। সম্প্রতি ওই ভিডিও ভাইরাল হতেই ফের নিন্দার মুখে পড়েছেন খট্টর।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই ভিডিওটি পোস্ট করেছেন কংগ্রেস নেতা রণদীপ সিংহ সুরজেওয়ালা। এতে দেখা যায়, শোভাযাত্রায় বেরিয়েছেন হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী খট্টর। এসময় তার হাতে রয়েছে ধারালো এক কুড়াল। তিনি গাড়ির মাথায় দাঁড়িয়ে কুড়াল উঁচিয়ে বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের দেখাচ্ছেন, কী ভাবে শত্রু নিধন করতে হয়।

এমন সময় পিছন থেকে দলের এক প্রবীণ সদস্য তার মাথায় রুপোর মুকুট পরিয়ে দেন। এই সামান্য ঘটনাতেই খেপে যান খট্টর। ওই নেতার দিকে হাতের কুড়ালটি উপরে তুলে বলেন, ‘কী করছিস? মাথা কেটে নেব তোর। দূর হয়ে যা!’ ওই নেতা তৎক্ষণাৎ মুকুট পরানোর মতো ‘অপরাধ’করার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর কাছে হাত জোড় করে ক্ষমা চেয়ে নেন। এরপর অন্য এক কর্মী তার হাত থেকে কুড়ালটি সরিয়ে নেন।

পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে। খট্টরের এহেন আচরণের বিরুদ্ধে নিন্দায় ফেটে পড়েছেন নেটিজনেরা। কংগ্রেস নেতা রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা টুইটারে মুখ্যমন্ত্রী খাত্তারকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘এতটা রাগ দেখানো ঠিক নয়। এত ক্ষোভ আর অহঙ্কার স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর।’

পরে আত্মপক্ষ সমর্থন করে খট্টর বলেন, মাথা কাটতে চাওয়ায় ওই নেতা কিছু মনে করেননি। কারণ ‘উনি তো দলের প্রবীণ কর্মী’।

এর আগে এক লোক তার সঙ্গে সেলফি তুলতে চাওয়ায় তাকে ধাক্কা মেরে ফেলে দিয়েছিলেন খট্টর।

এছাড়া জম্মু-কাশ্মীরে ওপর থেকে বিশেষ মর্যাদা তুলে নেয়ার পর তিনি এক প্রকাশ্য জনসভায় কাশ্মীরের নারীদের তুলে এনে ভোগ করার খায়েশ ব্যক্ত করেছিলেন। এই বক্তব্যের কারণেও ব্যাপকভাবে সমালোচিত হয়েছিলেন তিনি।

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত