ঢাকা, সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ আপডেট : ৭ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৯ নভেম্বর ২০১৯, ১৪:১৩

প্রিন্ট

বাবরি মসজিদে রাম মন্দির: ক্ষোভে ফুঁসছে ভারতীয় মুসলিমরা

রায়ে খুশি নয় ভারতীয় মুসলিমরা
অনলাইন ডেস্ক

আলোচিত অযোধ্যা মামলা নিয়ে ভারতের সর্বোচ্চ আদালত যে রায় দিয়েছে তাতে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড। সুপ্রিম কোর্ট ওই রায়ে বলেছে, অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতে রামমন্দির হবে। বিকল্প পাঁচ একর জমি পাবে মুসলিমরা।

এই রায় নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের আইনজীবী জাফরআইব জিলানি বলেন, ‘আমরা এই রায়ে সন্তুষ্ট নই। এতে অনেক ভুল তথ্য আছে। রিভিউ করা যাবে কিনা, সেটা আমরা আলোচনা করবো। তারপরই পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

তবে, এই রায়কে সম্মান জানানোর পাশাপাশি শান্তি বজায় রাখার আর্জি জানিয়েছেন তিনি।

তবে এ মামলার অন্যতম পক্ষ ইকবাল আনসারি বলেন, ‘সুপ্রিম কোর্ট শেষ পর্যন্ত যে রায় দিয়েছে তাতে আমি খুশি। আমি শীর্ষ আদালতের এই রায়কে সম্মান জানাচ্ছি।’

শনিবার সকালে আলোচিত অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ। রায়ে বলা হয়েছে, অযোধ্যার বিতর্কিত জমি পাচ্ছেন হিন্দুরাই। ফলে সেখানে তৈরি হবে রাম মন্দির। এজন্য আগামী ৩-৪ মাসের মধ্যে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারকে বিশেষ স্কিম তৈরি করার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। যাতে বিতর্কিত বাবরি মসজিদের জমি মন্দির পক্ষের হাতে তুলে দেওয়া হয়। অন্যদিকে বিতর্কিত বাবরি মসজিদের জমি বাদে নতুন মসজিদ তৈরির জন্য অযোধ্যার ৫ একর জমি দেওয়া হবে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডকে।

এদিকে রায় ঘোষণার আগে সব রাজ্যকে সতর্ক করেছে কেন্দ্র। অযোধ্যাসহ গোটা উত্তরপ্রদেশ মুড়ে ফেলা হয়েছে কড়া নিরাপত্তার চাদরে। নিরাপত্তার প্রবল কড়াকড়ি। অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণার আগে দুর্গের চেহারা নিয়েছে মন্দিরনগরী। সব রাজ্যকে সতর্ক করে ইতিমধ্যেই চিঠি পাঠিয়েছে কেন্দ্র। নজর রাখতে বলা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। উত্তরপ্রদেশে পৌঁছে গেছে চার হাজার আধাসেনা। শুধুমাত্র অযোধ্যা জেলাতেই মোতায়েন হয়েছে ১২ হাজার পুলিশ।

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত