ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে

শীতে ত্বক থাকুক যত্নে

  জীবন-শিল্প ডেস্ক

প্রকাশ : ২২ নভেম্বর ২০২০, ২০:২৮  
আপডেট :
 ২২ নভেম্বর ২০২০, ২০:৩৩

শীতে ত্বক থাকুক যত্নে
প্রতীকী ছবি

জীবন-শিল্প ডেস্ক

শুষ্ক ও ঠাণ্ডা আবহাওয়ায় ত্বক কোমল রাখতে চাই প্রসাধনীর পরিবর্তন এবং সঠিক যত্ন। জাঁকিয়ে শীত না পড়লে কী হবে। শীতের আমেজ কিন্তু পড়ে গিয়েছে। নিঃসন্দেহে এই আবহাওয়াটা বেশ উপভোগ্য। সঙ্গে বিয়ের মৌসুমও শুরু। তাই চুটিয়ে সাজগোজ করলেও মেকআপ নষ্ট হওয়ার ভয় নেই।

তবে শীতে একটা বড় সমস্যা থেকেই যায়। এ সময়ে ত্বক বড় বেশি শুষ্ক হয়ে যায়। নিয়মিত যত্ন না নিলে একেবারে নির্জীব, বয়স্ক লাগে দেখতে। তবে সাধারণ কিছু নিয়ম মেনে চললেই শীতেও আপনার ত্বক থাকবে উজ্জ্বল।

কিছু বিষয় মেনে চললে এই শীতেও আপনি পাবেন ঝকঝকে উজ্জ্বল ত্বক-

১. ত্বকে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন: শীতে মোলায়েম ত্বক পেতে চাইলে ময়েশ্চারাইজার অবশ্যই ব্যবহার করতে হবে। এতে ত্বকে পানির ভারসাম্য বজায় থাকে, পাশাপাশি ত্বকের স্বাভাবিক তৈলাক্ত ভাবও বজায় থাকে। আর এক্ষেত্রে নারকেল তেল, ক্যাস্টর ওয়েল, অলিভ ওয়েল, বাটারমিল্ক, শসা খুব ভালো প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার।

২. নিয়মিত পানি খান: শীতে শরীরে পানির চাহিদা এমনিতেই কম থাকে। ফলে আমরা অনেক সময় পানি খেতে ভুলে যাই। কিন্তু শরীর থেকে স্বাভাবিক নিয়মেও পানি বেরিয়ে যায়, সেই ভারসাম্য বজায় রাখতে পরিমাণ মতো পানি খান।

৩. উষ্ণ পানিতে মুখ ধোওয়ার অভ্যাস: গরম পানিতে গোসল করতে শীতে খুবই আরাম লাগে ঠিকই, কিন্তু এতেই ত্বকের ব্যাপক ক্ষতি হয়। উষ্ণ পানিতে গোসলের অভ্যাস গড়ে তুলুন। এতে ত্বকের স্বাভাবিক তৈলাক্ত ভাব নষ্ট হবে না।

৪. রাতে ত্বকের যত্ন নিন: ঘুমাতে যাওয়ার আগে মুখ ধুতে ভুলবেন না। তারপরে একটু ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে ঘুমোতে যান। প্রায় সাত থেকে আট ঘণ্টা ত্বক বিশ্রাম পায় এ সময়ে।

৫. তৈলাক্ত ত্বকের যত্ন নিন: আপনার ত্বক তৈলাক্ত মানে এই নয় যে, শীতের দিনেও ত্বক তেলতেলে থাকবে। ঠিকমতো যত্ন না নিলে তৈলাক্ত ত্বকও রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে যেতে পারে। এ জন্য মুখে ব্রণ বা কালোভাব দেখা দিতে পারে। তাই শীতেও তৈলাক্ত ত্বকের জন্য দরকার বাড়তি যত্ন। ঠিক সানস্ক্রিন ব্যবহার করা প্রয়োজন তৈলাক্ত ত্বকের জন্য। জেল বেসড সানস্ক্রিন নয়, ওয়াটার বেসড সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। ময়শ্চারাইজ়ারও ওয়াটার বেসড হতে হবে। এ ধরনের ত্বকে ব্ল্যাকহেডস, হোয়াইট হেডসের সমস্যা থাকে। শীত কালে যা প্রকট হয়। তাই এ সময়ে নিয়মিত ত্বক পরিষ্কার করা প্রয়োজন।

৬. ঠোঁটের যত্ন: শীতকালে ঠোঁট ফেটে যাওয়াটা আরো একটা বড় সমস্যা। ঠোঁটে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগাতে পারেন। গ্লসি লিপস্টিক লাগালেও ঠোঁট নরম থাকে। ঘুমোতে যাওয়ার আগে লিপবামও ব্যবহার করা যায়।

গরম পানিতে গোসল না: শীত মানেই গরম পানিতে গোসল করার প্রবণতা থাকে। কিন্তু সেটা ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। জলের ঠাণ্ডা ভাব কাটিয়ে নিন। ঈষদুষ্ণ পানিতে গোসল করা ভালো। এতে ত্বকের স্বাভাবিক তেলের মাত্রা বজায় থাকে।

শীত পড়ার ছাপ দেখা যায় ত্বকেও। তাই সময় থাকতেই সচেতন হলে এড়ানো যায় ত্বকের শীতকালীন সমস্যা। এই সহজ পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করুন, আর শীতে ত্বকের ক্ষতিগ্রস্ত হওয়াকে আটকান। আপনার ত্বক থাকুক সুস্থ ও উজ্জ্বল।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত