ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ৮ আষাঢ় ১৪২৮ আপডেট : ৬ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১৫ মে ২০২১, ১৭:৩২

প্রিন্ট

ত্বকের প্রয়োজন অনুযায়ী সানস্ক্রিন

ত্বকের প্রয়োজন অনুযায়ী সানস্ক্রিন
সংগৃহীত ছবি

জার্নাল ডেস্ক

আমরা সবাই জানি, গরমের সময় বাড়ির বাইরে যাওয়া মানে অবশ্যই সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হবে। কারণ সানস্ক্রিন আমাদের ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে রক্ষা করে। তবে আমাদের সবচেয়ে বড় ভুল হয় সানস্ক্রিন কেনার ক্ষেত্রে। বাজারে এখন অনেক সানস্ক্রিন পাওয়া যায়। কিন্তু কেনার আগে আমরা এটার ব্যাপারে কোন মাথা ঘামাই না। তবে সানস্ক্রিন কেনার আগে অব্যশই আমাদের মাথায় রাখতে হবে কোন সানস্ক্রিন ত্বকের জন্য প্রয়োজন। সানস্ক্রিন বাছাইয়ের আগে কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে খেয়ার রাখতে হবে। তার জন্য রইলো দিক নির্দেশনা।

সানসক্রিন সাধারণত দুই ধরণের হয়, ক্রিম ও ওয়াটার বেসড। এটি আসলে এসপিএফ (সান প্রোটেকশন ফর্মুলা)-সমৃদ্ধ প্রসাধনী। এটি মলূত কাজ করে পাতলা আবরণের মতো। যার ফলে সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি বা ইউভি-রে ত্বকের উপর সরাসরি ক্ষতি কতে পারে না। সানস্ক্রিন বাছতে হয় ইউভিএ (UVA) এবং ইউভিবি (UVB)- এই দুটো মাত্রা দেখে। ইউভিএ-এর A= এজিংইউভিবি-র B= বার্নিং

আমরা সাধারণত সকালে বা দুপুরে বাইরে বেরোনোর সময় সানস্ক্রিন ব্যবহার করি। কিন্তু একটা নির্দিষ্ট সময়ের পরেই, এটা আর কাজ করে না। যার ফলে ত্বকে কালচে ছোপ পড়ে। যেটা আসলে আমরা অনেকেই জানি না। কিভাবে জানবেন আপনার সানস্ক্রিন ত্বকে কতক্ষণ কাজ করবে।

একটা সহজ ফর্মুলা --এসপিএফ নম্বর x প্রোটেকশন ছাড়া পু্ড়তে কত সময় লাগবে= প্রোটেকশন কতক্ষণ কাজ করবেযেমন ধরুন, এসপিএফ (SPF) ১৫x১০ মিনিট= আপনার ক্রিমটি ১৫০ মিনিট কাজ করবে।

এক্ষেত্রে অবশ্যই মনে রাখতে হবে, আপনার ত্বক কতক্ষণ রোদ সহ্য করতে পারবে অথবা ত্বক পুড়তে শুরু করে কতক্ষণ পর। তবে এটা প্রত্যেকের ত্বকের ধরণ অনুযায়ী আলাদআ হয়। অনেক ক্ষেত্রে চড়া রোদে ১০ মিনিট থাকার পরেই, সমস্যাটা দেখা দেয়।

ট্যান পড়ে ইউভিএ (UVA) থেকে। যার জন্য ক্রিম এর মাত্রা থাকা প্রয়োজন অন্তত ৩-৪ । তবে অধিকাংশ প্যাকেটের গায়ে লেখা থাকে না সংখ্যায়। সেক্ষেত্রে চিহ্ন দেয়া থাকে। পাঁচটা স্টার পারফেক্ট।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনআর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত