ফটোস্টোরি: ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে নার্সারি মালিক-শ্রমিকরা

প্রকাশ : ২৭ নভেম্বর ২০২১, ২১:২৫ | অনলাইন সংস্করণ

  ইলিয়াস সাজু , ফটো করেসপন্ডেন্ট

ছবি- ইলিয়াছ সাজু

গোলাপ, ডালিয়া, চন্দ্রমল্লিকা, কসমস, সিলভিয়া, ক্যালেন্ডুলা, পাপিয়া, সূর্যমুখী, জারবেরা, গ্ল্যাডিওলাস, নানা ধরণের গাঁদাসহ অসংখ্য ফুলগাছের চারা শোভা পাচ্ছে রাজধানীর মোহাম্মদপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানের পাশের নার্সারিগুলোতে।

শীতকালে ফুলগাছের চারা কেনাবেচা বাড়বে বলে মনে করেন নার্সারির মালিকরা। নার্সারিগুলোতে ঘুরে দেখা যায়, সারি সারি নানা ফুলগাছের চারা। মালিক-কর্মচারী সবাই নার্সারিতে পরিচর্যার কাজে ব্যস্ত।

বোয়লমারী নার্সারির মালিক রিপন মিয়ার সাথে কথা বললে তিনি জানান, এবার শীত মৌসুমে প্রায় ১৫ প্রজাতির ফুলের চারা বিক্রির জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। শীতকালে ফুলসহ বিভিন্ন গাছের চারা বিক্রি বেশি হয়। 

হাইব্রিড জাতের গাঁদা, রক্ত গাঁদা, কুইন সুপার গাঁদা, বারমাসি গাঁদা ফুলের চারা প্রতি পিস ১০ টাকা করে বিক্রি করা হচ্ছে। হাইব্রিড জাতের ডালিয়া ১৫ টাকা, চন্দ্রমল্লিকা ১৫, স্নোবল ২০, ক্যালেন্ডুলা ১০, জিনিয়া ১০, ফ্লোস ২০, গ্যাজোনিয়া ১০, ডাইনথাজ ১০, রঙ্গমিক্স ১০, দোপাটী ১০, স্টার ১০, পাপিয়া ২০, সিলভিয়া ১০, ফায়ার বল ১৩০, অপূর্বিয়া ৮০, পানচাটিয়া ১৫০, রক্তজবা ৮০, রঙ্গন ৮৫, চায়না টগর ২০, কসমস ১০ টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছে।

বোয়লমারী নার্সারির মালিক রিপন মিয়া নিজেই গাছে পানি দিচ্ছে

নার্সারিতে শ্রমিকরা গাছের চারা মাটি-সার দিয়ে প্যাকেট করছে

নার্সারিতে এক শ্রমিক পরিচর্যার কাজে ব্যস্ত

 নার্সারিগুলোতে রাখা গাছে শীতকালীন গাঁধা ফুল ধরতে শুরু করেছে

নার্সারিগুলোতে রাখা গাছে গাছে শীতকালীন রকমারি ফুল ধরেছে

নার্সারিগুলোতে রাখা গাছে ধরেছে কমলা লেবু

বাংলাদেশ জার্নাল/এমজে