ঢাকা, শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ আপডেট : ৫৪ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২০ নভেম্বর ২০২০, ১৯:৫৯

প্রিন্ট

মাহবুবা করিমের একগুচ্ছ কবিতা

মাহবুবা করিমের একগুচ্ছ কবিতা
শিল্প-সাহিত্য ডেস্ক

(তোমার হাসি এত নিষ্পাপ কেন)

রিমঝিম বৃষ্টি শেষে যেই না মেঘ কেটে উঁকি দিলো ভরা পূর্ণিমা,

এই মুহূর্তে আমি নিশ্চিত— জোছনা তোমার হাসি

হাসি গালে চুমু খেয়ে পৃথিবীটা এতো আলোকিত করেছে...

নয়তো কী? অত রূপ চাঁদের কবে ছিলো?

হাসছো?

তুমি হাসলেই এমন হয়,

তুমি হাসলেই দাগী আসামিও বাইবেল পড়তে শুরু করে

তুমি হাসলেই ঘাতকের বিষমাখা ছুরি খসে পড়ে যায় হাত থেকে;

তুমি হাসলেই দগ্ধ হৃদয় মিঠা নদী হয়ে যায়।

কী বিশ্বাস হচ্ছে না?

হেসেই দেখো—

তুমি হাসলেই সহস্র প্রেমিক ক্রুশবিদ্ধ যীশু হতে চায়,

তুমি হাসলেই আমার খুব খুন হতে ইচ্ছা করে তোমার ভেতর।

শুনছো?

ঐভাবে হেসো না মেয়ে

হাসলেই পৃথিবী নুয়ে পড়ে তোমার পায়ের কাছে।

(প্যানিক নিস না)

দেখি দেখি ফিনফিনে ব্যথার ডায়নোসার— তোর দুষ্প্রাপ্য বিলেতি তিমিমাছ;

ধবধবে শাদা..পরী

মোমশিখা—হ্যালোজেন আলো,

কৃষ্ণচূড়া- তোর ঐশ্বর্য- ঈশ্বরী, দেখি দূর্লভ হীরে;

আমারতো বোঁচা নাক...ছেঁড়া মলাট..ধুমসি গড়ন;

তোর—সদ্যবেহায়া ব্যথার আস্তরণ, কোথাকার কে!

কে আমি?

তুই সাগর- মহাসাগর- তোর চৌকস অন্তরে ভাসে ভ্রুণেন্দু.. আধুনিকা

তোর পাতে ওঠে খাসির রেজালা

রুচিতে কড়া ঝাল ঝাঁজ শ্বেতশুভ্র অবন্তিকা;

স্ট্রিটের বারান্দায় উদোম বুকে লাটিম ছুড়িস....

সে এসে তালুতে তুলে নিয়ে তোকে নাচায়,

তুই ঝিম ধরে আলগোছে শুয়ে পড়িস তুলোর হাতে;

এতটাই কালো জাদু জানে সে.......

জাত-পাত নেই আমার, জানি;

আমিতো এসিডমুখো...মমিতে মাছি

তবে কী ধুলোর তবক? তোর এনাজায়টি?

কী ভাবি নিজেকে?

প্রেমিকা তো নই

আসক্ত হবি...

জানতুম জানতুম ঠিক -হুটহাট চলে যাবি....

যা

যা না যা

সচারাচর আমি আর দু-দশ দুঃখ, গায়ে মাখি না....

তুই –তোর তাসঘরে ফিরে না এলে, গোপনে গোপনে কাঁদি না।

উৎসর্গ— আরাজ

(প্যাঁচাল)

জিব্রাইল সংসার দিতে চাইলে; আমি তাকে ফিরিয়ে দিয়ে,

বলেছিলাম—

শুধুমাত্র কলম হলে পৃথিবীর গায়ে, গাছের বাকলে, ও পাতায়

লিখে দিতে পারি সুন্দর এর ব্যখ্যা।

আর একটি তুলি দিলে,

আকাশ আরোও একটু গাঢ় নীল করে দিতে পারি।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত