ঢাকা, শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ০৭ নভেম্বর ২০১৯, ২২:২৮

প্রিন্ট

নীলা হারুন-এর কবিতা ‘হাহাকার’

নীলা হারুন-এর কবিতা ‘হাহাকার’
অনলাইন ডেস্ক

যেভাবে জলীয় আকাশে ভেসে বেড়ায় রূপচাঁদা মাছরূপী ঘুড়ি-

সেভাবেই চ্যাপ্টা পুঁটির মত ঠোঁট নিয়ে সাঁতার কাটে পোষা হাঁসেরা।

জলের বাদুড় হল আকাশের শাপলাপাতা মাছ।

কাটা কামরাঙ্গার মত তারায় ঢাকা রাত;

তারাদের পেড়ে কি নুন মরিচ দিয়ে খাওয়া যায়?

দু’টাকার আইসক্রিমের ঘণ্টায় যে শিশু স্বর্গের ডাক পেত,

নারকেলের ফুলের বিনিময়ে বিক্রি হত যার সহস্র ঘণ্টার অধ্যবসায়,

সে শিশুর সকল সম্পদ জমা ছিল ময়ূরের ফেলে যাওয়া

একটি সোনালী পেখমে।

আমি পরিত্যক্ত পুকুরেও আলাদীনের কার্পেটের দেখা পাই- জমে উঠা পুরু শৈবালে।

বাংলাদেশের প্রবীণ পুরুষরা নীল লুঙ্গিতে ধরে রাখে আসমানী রং,

বাক্সবন্দী তারা কোটরে কোটরে;

গঞ্জে বিকোয় দরদামে।

মশলা বাটতে থাকা কারো হাতের দিকে তাকিয়ে মনে হয়-

প্রাগৈতিহাসিক যুগের কোন নারী

ঠুকে চলেছে পাথরে পাথর,

সন্ধান করছে আগুনের।

জমিনে লাঠির সাথে সমস্ত ভর পুঁতে দিয়ে নুয়ে দাঁড়ানো বৃদ্ধকে একটা সদ্য রোপা চারার মত কোমল মনে হয়।

আমি সাদৃশ্য পাই সবকিছুর-ই, তবু কবিদের সাথে নিজের সাদৃশ্য খুঁজে খুঁজে ব্যর্থ হই।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত