ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ৬ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১৫:০১

প্রিন্ট

রাজধানীতে মহিলাসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্ততার

রাজধানীতে মহিলাসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্ততার

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর আদাবর ও মোহাম্মদপুর থানা এলাকায় পৃথক দুইটি অভিযানে ৪৪৬ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার এবং ১ মহিলা মাদক ব্যবসায়ীসহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-২। সঙ্গে মাদক পরিবহনের ব্যবহৃত ট্রাক এবং প্রাইভেটকারও জব্দ করা হয়েছে।

বুধবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সমাজে মাদকের ভয়াল থাবার বিস্তার রোধকল্পে মাদক বিরোধী অভিযানে অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি র্যাব নিয়মিত আভিযানিক কার্যক্রমের মাধ্যমে মাদকের চোরাচালান, চোরাকারবারী, চোরাচালানের রুট, মাদকস্পট, মাদকদ্রব্য মজুদকারী ও বাজারজাতকারীদের চিহ্নিত করে তাদের গ্রেপ্তারসহ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করে যাচ্ছে। র্যাব-২ সব সময়ই মাদকের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ অবদান রেখে চলেছে।

এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৩ এপ্রিল র‌্যাব-২ এর আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, মাদক ব্যবসায়ীদের একটি চক্রের সীমান্ত এলাকা হতে ট্রাক যোগে মাদকের একটি বড় চালান নিয়ে গাবতলী বেড়িবাধ রোড হয়ে আদাবর থানা এলাকার উদ্দেশ্যে আসছে। এই তথ্যের ভিত্তিতে র্যাব-২ মাদকের চালানটি আটক করার জন্য গোয়েন্দা নজরদারি শুরু করে এবং চালানটির গতিবিধি অনুসরণ করতে থাকে।

বিবৃতিতে আরো জানানো হয়, র‌্যাব-২ এর আভিযানিক দল রাজধানী আদাবর থানাধীন আক্কাস নগর এলাকায় রাস্তার উপর বিশেষ চেকপোষ্ট স্থাপন করে আন্তঃ জেলা মাদককারবারী চক্রের সদস্য মো. আজিম (৩৩), মো. আল আমিনকে গ্রেপ্তার করে।

প্রাথমিক অনুসন্ধান ও আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে প্রেক্ষিতে তারা মাদক পরিবহনের কথা স্বীকার করে এবং তাদের দেয়া তথ্য মতে ট্রাকের ড্রাইভারের সিটের পিছনে ২টি প্লাষ্টিকের বস্তার ভিতর হতে ২৪৮ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়

অন্যদিকে র্যাব-২ এর আরেকটি আভিযানিক দল ১৩ এপ্রিল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী সীমান্তবর্তী এলাকা হতে প্রাইভেটকার যোগে নিষিদ্ধ মাদক ফেন্সিডিলের একটি চালান নিয়ে রাজধানীর আসাদ গেইট হয়ে আল্লাহ করিম এলাকায় অজ্ঞাত নামা মাদক ব্যবসায়ীর নিকট হস্তান্তরের উদ্দেশ্য আসছে।

সংবাদের সত্যতা যাচাইয়ে র্যাব-২ এর আভিযানিক দল মোহাম্মদপুর থানাধীন টাউন হল এলাকায় পাকা রাস্তার উপরে চেকপোষ্ট স্থাপন করে সন্দেহ জনক প্রাইভেটকার থামিয়ে তল্লাশী করতে থাকে। এই স্থানে কারটি সন্দেহ হলে থামার সংকেত দেয়া মাত্র র্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে গাড়ি থামিয়ে দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করে আসামীরা। এসময় মো. সাগর (৩২), মোছা. রিমু আক্তার (২২) কে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত আসামীদের নিষিদ্ধ মাদক ফেন্সিডিল সংক্রান্ত বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদে প্রথমে অস্বীকার করলেও পরবর্তীতে প্রাইভেটকারের পিছনের সিটের নিচে তেলের ট্যাংকের ভিতরে বিশেষভাবে লুকায়িত ১৯৮ বোতল নিষিদ্ধ মাদক ফেন্সিডিল পাওয়া যায়।

গ্রেপ্তারকৃত আসামীরা জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, তারা পরষ্পর যোগ সাজোসে দীর্ঘ দিন যাবৎ নিষিদ্ধ মাদক দ্রব্য ফেন্সিডিল সুকৌশলে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে বিক্রয় করে আসছিল।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসএমআর/কেএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত