ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮ আপডেট : ২ মিনিট আগে

মনিষা বিশ্বাসের কবিতা ‘নপুংসক ভাবনা’

  শিল্প-সাহিত্য ডেস্ক

প্রকাশ : ১০ জুন ২০২১, ১৩:০০

মনিষা বিশ্বাসের কবিতা ‘নপুংসক ভাবনা’
ছবি- নিজস্ব

শিল্প-সাহিত্য ডেস্ক

যে পুরুষ দিনরাত একটি ভালো বউয়ের স্বপ্নে বিভোর

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ তাঁর পায়ের তলায় স্ত্রীর বেহেশত ভাবনায় বিভোর

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ স্ত্রীর সিঁদুরের গভীরে তাঁর সৌভাগ্য দেখে

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ ধর্ষণ করতে করতে প্রার্থনা করে

‘এই পাপ যেন কেউ না জানে খোদা’

-আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ টাকাকে ঈশ্বর ভাবে

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ স্ত্রীর পোশাক নিয়ে উদ্বিগ্ন-

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ জানে না তার প্রিয় ফুল কী

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষের ভাবনায়

স্ত্রীর গর্ভে বাচ্চা দান ক্ষমতায়ই তার পুরুষত্ব

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ স্ত্রীর স্বাধীনতার বদলে

শোষণ করতেই ভালোবাসে

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ অর্থের ওজনেই নিজেকে মাপে

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ স্ত্রীকে দাসী বানাতে পেরে

নিজেকে ক্ষমতাধর মহাপুরুষ ভাবে

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ একাধিক নারীকে

টাকায় বাগিয়ে রাখাকে যোগ্যতা মনে করে

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ স্ত্রীর মান অভিমানে প্রশ্ন করে না

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ স্ত্রীকে শাড়িগয়নার মধ্যে ডুবিয়ে রেখে

নিজেকে দিগবিজয়ী প্রেমিক পুরুষ ভাবে

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ সহনশীল না-

আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ বাইরে মিউমিউ করে এসে সংসারে বিপ্লব ঘটায় আমি তার জন্য লিখি না।

যে পুরুষ স্বীকার করে যে,

সমাজে এখনো নারী তুমুল নির্যাতিত,

শোষিত ও পুরুষ এখনো স্ত্রীর নৃপতি ভাবে এবং

স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিতে পারে

তাঁর এইসব নপুংসক ভাবনায় নারী জাতির বালডা হইব,

আমি তার জন্য লিখি।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত