ঢাকা, বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ আপডেট : ১ মিনিট আগে

গিয়াস গালিবের একগুচ্ছ কবিতা

  শিল্প-সাহিত্য ডেস্ক

প্রকাশ : ১৯ জুন ২০২২, ০৩:০৭

গিয়াস গালিবের একগুচ্ছ কবিতা
শিল্প-সাহিত্য ডেস্ক

।।ভাবাভাবি।।

তোমাকে ভাবলেই মনে পড়ে ওপাড়ার

শিমুল,

শিমুল মানে সবচে ভদ্রনর্তকী।

শহরের বাতাসে ক্ষুধার এপিটাফ।

নাহ্!

এইসব ভাবাভাবিতে কারোর কিছু

কাটা যায় না, এইসা

বিছানো চটে ছিটানো ধান

একপেশে তুমি, ঝাঁকঝাঁক কবুতর...

।।রাত্রি পাঠ।।

আমার চিঠি ইতি দিয়ে শুরু।

ঘরে দুয়ার দিয়ে আছি,

টবের ফুল গাছটি টবে যাচ্ছে শুকিয়ে,

ঘরকে মিত্র, বাহিরকে শত্রু ভাবার

কারণ নেই।

আলো রাত। কেউ যেন কফিনের শেষ পেরেকটি নিয়ে দাঁড়ায় আছে;

আমি এবং আমার ভেতরের একজন

মানুষ, ফুলটিকে দেখে সাহস নেবো..

দেখা যাচ্ছে হুক লাগাতে গিয়ে খুলে

আছি।

।।অনূঢ় বৃষ্টি।।

রাফখাতাজুড়ে ত্রিকোণমিতি মেঘ

কোনা পাড়ার বাতাসে

ধুলোর ন্যায় উড়ো উড়ো আলজিভের

পোড়া তিলের গল্প

অথচ, নগ্নতার কথা এলেই, ধান দেখিয়ে দেই চাউল___

অতিশয় কতো লুকাও!

পাছে ফুটে থাকা কাঠগোলাপ, ঘ্রাণ

রোদেল মেজাজে ফোটা চড়ুই, মিডিয়া

পাড়ায় বিশ্বস্ত বন্ধু চাই মতো বিজ্ঞাপন

অনূঢ় বৃষ্টি। ভাবো।

।।জখম।।

কেউ কেউ এমন করে যায়, যেমন পাহাড়ের বুক চিরে গ্যাছে রাস্তা

শর্মী ফুলের কাছে একটি দুপুর

রোদের এপেন্ডিসাইট নিয়ে সারাদিন

কারোর কোন নিক্তি নাই, সহসা

কিছু জখম এমনও হ'য় যেন প্রেমিকা পক্ষ জেঠাসের অসুখ...

বাংলাদেশ জার্নাল/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত