ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ আপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ১৫:৩৮

প্রিন্ট

বন্যাকে হত্যার পর রুবেলের পরিবার উৎসবের আমেজ!

বন্যাকে হত্যার পর রুবেলের পরিবার উৎসবের আমেজ!
নিজস্ব প্রতিবেদক

হত্যার আগে স্ত্রী বন্যাকে সাজগোছ করিয়ে রাজধানীর বোটানিক্যাল গার্ডেনে নিয়ে যায় কিশোর গ্যাং লিডার রুবেল। এরপর তার গলায় ওড়না পেঁচিয়ে হত্যা করে লাশ ডোবায় ফেলে দেয়া হয়।

শুধু তাই নয়, বন্যাকে হত্যার পর রুবেলের পরিবার উৎসবের আয়োজন করে বলে অভিযোগ উঠেছে।

বন্যার পরিবারের অভিযোগ, হত্যা করার পর রুবেলের বাড়িতে উৎসবের আয়োজন করা হয়। সেখানে তারা মাংস-পোলাও, খিচুড়ি রান্না করে খাবার আয়োজন করে।

পুলিশ জানায়, বেড়ানোর কথা বলে কিশোর গ্যাং লিডার রুবেল তার স্ত্রীকে রাজধানীর বোটানিক্যাল গার্ডেনে নিয়ে যায় মঙ্গলবার। সুযোগ বুঝে সহযোগী তারিকুল ইসলামকে নিয়ে বন্যাকে খুন করে লাশ ডোবায় ফেলে দেয়।

বৃহস্পতিবার ভোরে বন্যার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বন্যার মা বাদী হয়ে রাজধানীর শাহআলী থানায় হত্যা মামলা করার পর বৃহস্পতিবারই গ্রেপ্তার করা হয় ঘাতক রুবেল ও তাদের সহযোগী তারিকুলকে।

রুবেল ও তার সহযোগী শুক্রবার বন্যাকে হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

এদিকে বন্যাদের বাসা রূপনগর আবাসিক এলাকার খুনি রুবেলের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ করেছে স্থানীয়রা।

জানতে চাইলে শাহআলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সালাউদ্দিন মিয়া বলেন, মামলা করার পরপরই আমরা আসামি রুবেল এবং তার সহযোগী তারিকুলকে গ্রেপ্তার করি। তারা হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে।

তিনি জানান, পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তারা বন্যাকে ওড়না পেঁচিয়ে হত্যার কথা জানায়।

বাংলাদেশ জার্নাল/কেআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত