ঢাকা, শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৯ কার্তিক ১৪২৭ আপডেট : ৩ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:৫১

প্রিন্ট

ছাত্র অধিকার পরিষদ থেকে মামুনকে অব্যাহতি

ছাত্র অধিকার পরিষদ থেকে মামুনকে অব্যাহতি
নিজস্ব প্রতিবেদক

ধর্ষণের অভিযোগ ওঠায় বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনকে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দিয়ে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বুধবার সংবাদমাধ্যম পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানায় সংগঠনটি।

পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২১ ও ২২ সেপ্টেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনসহ চার নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও ধর্ষণে সহযোগিতা করার অভিযোগ এনে লালবাগ ও কোতোয়ালি থানায় দুটি অভিযোগ দায়ের করে। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই ছাত্র অধিকার পরিষদ ছাত্র তথা গণমানুষের ও ন্যায়সঙ্গত অধিকার আদায়ে সোচ্চার ভূমিকা পালন করে আসছে। তাই সংগঠনের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের সত্যতা নিরুপনে এবং সুষ্ঠু ন্যায়বিচারের স্বার্থে তিনি সদস্যের কমিটি গঠন করা হল। তিন সদস্যের তদন্ত কমিটিতে রয়েছে, পরিষদের ঢাবি সভাপতি বিন ইয়ামিন ও কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহবায়ক তারেক রহমান ও রাফিয়া সুলতানা।

এতে আরো বলা হয়, তদন্ত কমিটিকে আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সুপারিশসহ ঘটনার বিস্তারিত তথ্য কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের নিকট পাঠাতে হবে। এ ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্তের স্বার্থে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনকে সাময়িকভাবে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক সহ-সভাপতি নুরুল হক নুরসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্রী লালবাগ থানায় এই মামলা করেন। পরদিন কোতোয়ালি থানায় এ সংক্রান্ত আরেকটি মামলা করা হয়।

ওই মামলায় নুর ছাড়া অন্য আসামিরা হলেন- হাসান আল মামুন, নাজমুল হাসান, মো. সাইফুল ইসলাম, নাজমুল হুদা ও আবদুল্লাহ হিল বাকি। এর মধ্যে মূল অভিযুক্ত হাসান আল মামুন, আর নুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণে সহায়তার অভিযোগ আনা হয়েছে।

আরো পড়ুন

ভিপি নুর আটক

ভিপি নুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণে সহায়তার মামলা

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত