ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭ আপডেট : ৪ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৭:২২

প্রিন্ট

দেশে নৈরাজ্য চলছে: ফখরুল

দেশে নৈরাজ্য চলছে: ফখরুল
নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশে নৈরাজ্য চলছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। রোববার বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, সিলেটের এমসি কলেজের ঘটনা অত্যন্ত ভয়াবহ। এটাই দেশের প্রকৃত চিত্র। এখানে কারো কোনো নিরাপত্তা নেই। এখানে একটা ল’ লেসনেস চলছে, নৈরাজ্য চলছে এবং সেটা আওয়ামী লীগের সৃষ্ট। আমরা এই ঘটনা (ধর্ষণ) তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। আমি অবিলম্বে ছাত্র লীগের দুস্কৃতিকারীদের গ্রেপ্তার করে তাদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার দাবি জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, আজকে প্রায় ৫০ বছর হতে যাচ্ছে স্বাধীনতার। এখন পর্যন্ত দেশে আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় এসেছে তখনই এই ধরনের নৈরাজ্য বৃদ্ধি পেয়েছে এবং আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবণতি হয়েছে। এই আওয়ামী লীগ একটা ব্যাপারে সফল হয়েছে যে তারা সারাদেশের সকল মানুষের মধ্যে একটা ত্রাস সৃষ্টি করতে পেরেছে, একটা ভয়-ভীতি সৃষ্টি করতে পেরেছে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, প্রবাসীদের ফেরার বিষয়টি নিয়ে সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। একটা হচ্ছে যে, তাদেরকে (প্রবাসীদের) আসার সময়ে যে সুরক্ষা দেয়ার কথা ছিলো সেটা দেয়া হয়নি। পরে অর্থনৈতিক যে প্রণোদনা দেয়ার কথা ছিলো সেটা দেয়া হয়নি। ফলে অনেকেই ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। আজকের পত্রিকায়ও খবর বেরিয়েছে।

তিনি বলেন, এখানে দুর্ভাগ্য যেটা, আজকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যেটা রয়েছে সেগুলো সরকারি দলের সঙ্গে এক হয়ে তারা এই অপরাধগুলো করছে। আপনারা দেখেছেন কিছুদিন আগে কক্সবাজারের মেরিনডাইভে অন দ্যা স্পট একজন অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (মেজর সিনহা) হত্যা করা হয়েছে। কক্সবাজার থেকে প্রায় সকল পুলিশ সদস্যকে বদলি করে দিয়ে আজকে প্রমাণিত হয়েছে যে, কক্সবাজারে এতোদিন ধরে যে ক্রসফায়ারগুলো হয়েছে, বিচারবর্হিভুত হ্ত্যাকান্ডগুলো হয়েছে প্রায় ২'শ উপরে-এগুলোর পরিকল্পিতভাবেই হয়েছে। তাদের পেছনে সর্বোচ্চ পর্যায়ের মদদ ছিলো বলে আমরা মনে করি।

বাংলাদেশ জার্নাল/কেএস/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত