ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮ আপডেট : ২ মিনিট আগে

ওয়াসার পানির আরেক নাম মরণ

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ২৪ জুন ২০২১, ১৩:৫৩

ওয়াসার পানির আরেক নাম মরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা ওয়াসার পানির আরেক নাম মরণ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল। বৃহস্পতিবার পানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ওয়াসায় স্মারকলিপি প্রদানের পূর্বে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে এ মন্তব্য করেন তিনি।

ওয়াসার পক্ষ থেকে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন সংস্থাটির প্রধান নিরাপত্তা কর্মী মো. মাকসুদুল হক। তিনি বলেন, স্মারকলিপিটি যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছে দেয়া হবে।

সমাবেশে সোহেল বলেন, পানির বিল অন্যায়ভাবে বাড়ানো হয়েছে। গত ১৩ বছরে ১৪ বার ওয়াসা পানির বিল বাড়িয়েছে। এই পানির বিল ছিল ৬ টাকা ৪ পয়সা। সর্বশেষ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১ হাজার লিটার পানির বিল হবে ১৫ টাকা ১৮ পয়সা। তীব্র ভাষায় এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আপনি যদি একদিনের জন্য ওয়াসার এক গ্লাস পানি খান, খাওয়ার এক ঘণ্টার মধ্যে আপনি যদি চিকিৎসকের শরণাপন্ন না হন তাহলে রাজনীতি ছেড়ে দেব।

ওয়াসা এখন একজন এমডির কথা মতো চলে মন্তব্য করে হাবিব উন নবী খান সোহেল বলেন, দিন যায় রাত আসে, গ্রীষ্ম যায় বর্ষা আসে। সব পরিবর্তন হয়, কিন্তু ওয়াসার এমডি পদে যিনি আছেন তার কোন পরিবর্তন নেই!

প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষকের বেতন ৩০ হাজার টাকা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই ঢাকায় ময়লা পানির যিনি কারিগর তার বেতন ৬ লাখ ২০ হাজার টাকা! আর এই করোনা মহামারীতে ঢাকাবাসীর পাশে না দাঁড়িয়ে ওয়াসার এমডি মার্কিন মুলুকে বসে রিমোট কন্ট্রোলে ওয়াসা চালাচ্ছেন।

স্মারকলিপিতে পানির দাম বৃদ্ধিকে অযৌক্তিক ও গণ-বিরোধী উল্লেখ করে বলা হয়, নিরবচ্ছিন্নভাবে সুপেয় ও নিরাপদ পানি সরবরাহ নিশ্চিত করা সরকারের নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, ওয়াসা কর্তৃপক্ষ সেটি করতে ব্যর্থ হয়েছে। বারবার অযৌক্তিকভাবে পানির দাম বৃদ্ধি করা সরকারের ধারাবাহিক কর্মকাণ্ডে পরিণত হয়েছে। কিন্তু নগরবাসীর জন্য সুপেয় ও নিরাপদ পানি সরবরাহ করতে পারেনি।

বাংলাদেশ জার্নাল/কেএস/কেআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত