ঢাকা, শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৩ আশ্বিন ১৪২৮ আপডেট : ১০ মিনিট আগে

ন্যাপের ৬৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী মঙ্গলবার

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ২৬ জুলাই ২০২১, ১৬:৫৩

ন্যাপের ৬৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী মঙ্গলবার
নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ) এর ৬৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী মঙ্গলবার (২৭ জুলাই)।স১৯৫৭ সনের ২৫ ও ২৬ জুলাই দুই দিনব্যাপী পুরানো ঢাকার সদরঘাটের কাছে রূপ মহল সিনেমা হলে কর্মী সম্মেলনের মধ্য দিয়ে জন্ম নেয় ন্যাশনাল আওয়াামী পার্টি (ন্যাপ)। করোনা মহামারির কারণে সীমিত পরিসরে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হবে বলে দলটি জানিয়েছে।

সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো ন্যাপের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ৬৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭ টা ৩০ মিনিটে এক ভার্চ্যুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। সারাদেশের নেতৃবৃন্দ ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করবেন।

প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে ন্যাপ গঠনে তৎকালীন নেতৃবৃন্দকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করে বলা হয়, অসম্প্রদায়িক এ দল গঠনে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান থেকে ছিলেন মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী, অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ, পীর হাবিবুর রহমান, মহিউদ্দিন আহমেদ, হাজী মোহাম্মদ দানেশ, সৈয়দ আলতাফ হোসেন, মোহাম্মদ তোয়াহা, পূর্ণেন্দু দস্তিদার, সেলিনা বানু, সৈয়দ আশরাফ হোসেন, আহমেদুল কবির প্রমুখ। পশ্চিম পাকিস্তান থেকে ছিলেন সীমান্ত গান্ধী খান আবদুল গফফার খান, ইফতেখার উদ্দিন, জিএম সৈয়দ, মাহমুদুল হক ওসমানী, গাউস বক্স বেজেনজো, মিয়া ইফতেখার উদ্দিন প্রমুখ।

এতে বলা হয়, ১৯৬৭ সালে রাজনৈতিক মতবিরোধের ফলে ন্যাপ দ্বিধাবিভক্ত হয়ে যায়। তখন সারা পাকিস্তান ন্যাপের সভাপতি হন খান আবদুল ওয়াালী খান ও পূর্ব পাকিস্তান ন্যাপের সভাপতি হন অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ। গণতান্ত্রিক আন্দোলন, সাম্রাজ্যবাদ, স্বৈরাচার, সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী আন্দোলন, নির্যাতন ও শোষণের বিরুদ্ধে সকল আন্দোলনে ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ) গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। মুক্তিযুদ্ধে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে ন্যাপ এবং ন্যাপের প্রয়াত সভাপতি অধ্যাপক মোজাফফর আহমদের অবদান ইতিহাসে স্মরণীয় হয়ে আছে।

বাংলাদেশ জার্নাল- ওআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত