ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ আপডেট : ১ মিনিট আগে

৫০ শতাংশ ভোট কাস্ট হলেও নারায়ণগঞ্জে বিতর্ক কম হয়েছে

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৮:৫১

৫০ শতাংশ ভোট কাস্ট হলেও নারায়ণগঞ্জে বিতর্ক কম হয়েছে
ছবি- সংগৃহীত
নিজস্ব প্রতিবেদক

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের বিএনপিদলীয় সাংসদ হারুনুর রশীদ বলেছেন, নারায়ণগঞ্জের নির্বাচনে তুলনামূলকভাবে বিতর্ক কম হয়েছে। এখানে মাত্র ৫০ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়েছে।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব ওর্ডারে দাঁড়িয়ে কথাগুলো বলেন বিএনপি দলীয় এ সংসদ সদস্য।

এসময় চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভাসহ দেশের স্থানীয় সরকারের নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ এনে দায়ীদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে শাস্তির দাবি জানান এমপি হারুনুর রশীদ।

সংসদে পয়েন্ট অব ওর্ডারে দাঁড়িয়ে বিএনপি দলীয় এ সংসদ সদস্যের বক্তব্যের সময় সরকার দলীয় এমপিরা তার বক্তব্যে বাঁধা দিতে থাকেন।

হারুনুর রশীদ বলেন, আমি গত সংসদে আবেদন রেখেছিলাম- আমরা এই সংসদে আছি, অন্তত পক্ষে আমার নির্বাচনী এলাকায় যেন জনগণ ভোট দিতে পারে এই নিশ্চয়তা চেয়েছিলাম। প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিলাম এবং সরাসরি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলাম এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গেও কথা বলেছিলাম। কিন্তু আমার এলাকায় নির্বাচন হয়নি। সেদিন কেনো নির্বাচন হয়নি। ইভিএমে ভোট হয়েছে। ইভিএম কেন্দ্রগুলোতে অনেকে ব্যাচ লাগিয়ে ঘুরেছে, কেউ বলছে আমি ইভিএম মনিটর করছি, কেউ বলছে ইভিএমের টেকনিশিয়ান। আমি প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সঙ্গে কথা বলেছি; কিন্তু কোনো উত্তর পাইনি।

হারুন আরও বলেন, নির্বাচন কমিশন গঠনে সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদে সুস্পষ্টভাবে বলা আছে আইনের মধ্য থেকে রাষ্ট্রপতি একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন করবেন। সেখানে তিনি একজন প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ চারজন নির্বাচন কমিশনার থাকবেন।

তিনি বলেন, নাসিক নির্বাচন হয়েছে। তুলনামূলকভাবে নারায়ণগঞ্জের নির্বাচন নিয়ে বিতর্ক কম হয়েছে। এখানে মাত্র ৫০ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়েছে।

এর আগে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশন শুরু হয়। স্পিকারের অনুমতি নিয়ে পয়েন্ট অব অর্ডারে নিজ নির্বাচনী এলাকা পৌরসভার নির্বাচনের কথা তুলতে গিয়ে কথাগুলো বলেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমজে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত