ঢাকা, রোববার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ আপডেট : ৪ মিনিট আগে
শিরোনাম

টাকা পাচার আওয়ামী লীগের মূলনীতি: ফখরুল

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১৮ মার্চ ২০২৩, ১৮:৪১  
আপডেট :
 ১৮ মার্চ ২০২৩, ১৮:৪৩

টাকা পাচার আওয়ামী লীগের মূলনীতি: ফখরুল
বিএনপির সমাবেশ। সংগৃহীত ছবি

টাকা পাচার আর দুর্নীতি আওয়ামী লীগ সরকারের মূলনীতি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, এই রাষ্ট্র ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। এই রাষ্ট্রকে এখন সংস্কার করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে যেমন এই দেশকে স্বাধীন করা হয়েছে, দেশকে নতুনভাবে পরিচালনার জন্য আবার সংস্কার প্রয়োজন। আন্দোলনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ সরকারকে সরে যেতে বাধ্য করতে হবে। এরপর দশ দফার আন্দোলনের মাধ্যমে নতুন ভাবে সাজাতে হবে।

শনিবার বিকেলে নয়াপল্টনে দলের কার্যালয়ের সামনে ১০ দফার দাবিতে আয়োজিত সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ প্রতিদিন শতশত কোটি টাকা বিদেশে পাচার করে নিচ্ছে। ব্যাংকিং খাতকে লুট করে একেবারে দেশের অর্থনৈতিক ব্যবস্থাকে টুকরো করে দিয়েছে। রিজার্ভ থেকে ৮শ কোটি টাকা লুট হয়ে গেছে। যেখানে যাবেন, সেখানেই দুর্নীতি। ইউনিয়ন পরিষদে যাবেন, আদালতে যাবেন, সবখানেই দুর্নীতি। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও বাদ যায়নি। সেখানেও ঘুষ দিতে হয়। একজন পিয়নের চাকরির জন্য লাখ লাখ টাকা ঘুষ দিতে হয়। কারণ এ সরকার জনগণের সরকার নয়। তারা ভোট চুরি করে ক্ষমতায় এসেছে । দেশের আদালত প্রাঙ্গণেও এ সরকার ভোট চুরির রূপ দেখিয়েছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় যেতে চায় না। জনগণের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসতে চায়। এই সরকার জনগণের আন্দোলনের সরে যেতে বাধ্য হবে।

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান বলেন, আওয়ামী লীগের পরিচয় এখন ভোট চোর। আদালতেও তারা এখন ভোট চুরি করে। সরকারকে হুঁশিয়ার করে বলে দিতে চাই আগামীতে আর ভোট চুরি করে ক্ষমতায় আসা যাবে না। সরকারকে ক্ষমতা থেকে সরে যেতে হবে। তত্ত্বাবধায়ক সরকার দিতে হবে।

বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের অধীনে আমরা নির্বাচনে যাবো না। আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারের বিরুদ্ধে ফায়সালা করা হবে।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, আওয়ামী লীগ এখন কোপাকুপি লীগে পরিণত হয়েছে।

বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক কমিটির সদস্য ইশরাক হোসেন বলেছেন, এই সরকারের বড় পরিকল্পনা করেছেন।রমজানের পর আমাদের সকল নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করবেন। ঈদের পর আমাদের মাঠে নামতে দেয়া হবে না।

বাংলাদশে জার্নাল/এএইচযআরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত