ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ আপডেট : ২১ মিনিট আগে
শিরোনাম

ফখরুল জেলে, অবরোধে নেতৃত্ব দেবে কে: ওবায়দুল কাদেরের প্রশ্ন

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ৩০ অক্টোবর ২০২৩, ১৩:৫৮  
আপডেট :
 ৩০ অক্টোবর ২০২৩, ১৪:১০

ফখরুল জেলে, অবরোধে নেতৃত্ব দেবে কে: ওবায়দুল কাদেরের প্রশ্ন
বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের যৌথসভায় ওবায়দুল কাদের । ছবি: সংগৃহীত

বিএনপি’র অবরোধ কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দেবেন কে, সে বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, বিএনপি অবরোধ কর্মসূচি দিয়েছে। ফখরুল সাহেব তো জেলে, বাকি নেতারা পালিয়ে আছে। তাদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাহলে অবরোধে নেতৃত্ব দেবে কে?

সোমবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের যৌথসভায় এ প্রশ্ন করেন তিনি।

নৃশংসতা বিএনপির আসল রূপ উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তারা কত ভয়ংকর তা ২৮ অক্টোবর প্রমাণ করেছে। নৃশংসতা বিএনপির আসল রূপ। সাংবাদিক-পুলিশ কাউকে ছাড় দেয়নি। সাংবাদিক যা দেখবে তা লিখবে, এটাই বিএনপির চোখে অপরাধ। তাই সাংবাদিকদের ওপর হামলা করেছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, রাজনীতিতে এমন কিছু ভুল আছে যেগুলো সংশোধন করার সময় অনেক সময় থাকে না। বিএনপি এমন কিছু দৃশ্যমান অপরাধ, আন্দোলনের নামে করেছে; যেটা আজকে গাজায় যে নৃশংসতা সাধারণ মানুষের ওপর হচ্ছে তার চেয়েও ভয়ংকর তারা। আমাদের নারী কর্মীরাও রেহাই পাইনি তাদের নির্যাতন থেকে। অনেককেই তারা তাদের পোশাক ধরে টানাটানি করেছে, আঘাত করেছে মারধর করেছে। মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে।

অবরোধের নেতৃত্ব দেবে কে এমন প্রশ্ন রেখে কাদের বলেন, ২৮ তারিখে সরকার পতন, ২৯ তারিখে নতুন সরকার গঠন; এমন একটা কথা হয়েছিলো তাদের মধ্যে। আজকে ৩০ তারিখেও আমরা আছি। ২৮ গেলো ২৯ গেলো কিছুই তো হলো না। অনেক রাত পর্যন্ত নেতাকর্মীরা (আওয়ামী লীগ) এখনো মনে করছেন তাদের ডিউটি এখনো চলছে। আমরা দেখতে পাচ্ছি আমাদের নেতাকর্মীদের মধ্যে বিজয়ের মনোভাব। এটাই আমাদের বিজয়।

তিনি বলেন, বিএনপি যখন চূড়ান্ত আন্দোলনের কথা বলে বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে পদযাত্রা শুরু করেছিলো তখনই বলেছিলাম, এটাই তাদের পতনযাত্রা। ফখরুল সাহেব জেলে, বাকিরা পালিয়েছেন। অবরোধের নেতৃত্ব দেবে কে?

আরও পড়ুন: মির্জা ফখরুল কারাগারে

বিএনপির সমর্থক গতকাল গাড়িতে আগুন দিয়ে পালাতে গিয়ে একটি নির্মাণাধীন বাড়ির ছাদে উঠেন। এরপর সেখান থেকে লাফ দিয়ে পড়ে মারা গেছেন। তাকে আবার তাদের আন্দোলনের শহীদ হিসেবে অ্যাখ্যা দিচ্ছেন নেতারা।

পুলিশ সদস্যকে তারা যেভাবে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে এটাই বিএনপির আসল রুপ। বিএনপির কর্মীরা কী বলবেন, কর্মীদের কিছু টাকা ধরিয়ে দিয়ে অতিরিক্ত কাপড় নিয়ে ঢাকায় আসতে বলেছিলেন নেতারা। বিএনপির কর্মীরা এখন বাড়ি ফিরতে ফিরতে বলছেন তারেক ভুয়া, ফখরুল ভুয়া। কেউ কেউ কান ধরে বলেছেন, এই দল আর করবো না যোগ করেন ওবায়দুল কাদের।

বিএনপির আন্দোলনের নামে সহিংসতার মুখে পরিস্থিতি মোকাবিলা করায় নেতাকর্মীদের সাধুবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ধানমণ্ডি, গুলিস্তানসহ পুরো ঢাকা জুড়ে নেতাকর্মীরা সেদিন পাহারায় ছিলো এবং তাদের মধ্যে বিজয়ের উল্লাস ছিলো। আমরা নিশ্চিতভাবে নির্বাচনে বিজয়ের দিকে যাচ্ছি।

যারা নির্বাচন করতে চান প্রত্যেকের রিপোর্ট আমাদের কাছে আছে এবং যাচ্ছে আমাদের নেত্রীর (শেখ হাসিনা) কাছে। মাঠপর্যায়ের রিপোর্টের ভিত্তিতে আগামী নির্বাচনের মনোনয়ন দেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

বর্তমানে এখন যে অবস্থায় আমরা আছি, আগামী নির্বাচনে বিজয়ী হবো। টানা চতুর্থবারের মতো বঙ্গবন্ধুর কন্যা ক্ষমতায় আসবেন এ কথা জানিয়ে তিনি বলেন, বিশ্বনেতারা যাকে সম্মান করছেন। তখন দেশের কিছু মানুষ তাকে ছোট করতে চাইছে। তাই আমাদের কর্মসূচি যা ছিলো তা অব্যাহত থাকবে। আমাদের শান্তি সমাবেশ অব্যাহত থাকবে।

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা কোনো অবস্থাতেই নিজেদের উপর নিয়ন্ত্রণ হারাবেন না। বিরোধী দলের ব্যর্থ কর্মসূচিতে সতর্ক রয়েছে আওয়ামী লীগের কর্মীরা। আমরা শান্তিপূর্ণ অবস্থানে থাকবো।

অবরোধে জাতীয় সম্পদে যেন আঘাত করতে না পারে, সে কারণে বড় বড় প্রকল্পগুলোর দিকে খেয়াল রাখতে হবে বলেও এ সময় মন্তব্য করেন তিনি।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত