ঐতিহাসিক বক্সা দুর্গ

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১০:৩৬ | অনলাইন সংস্করণ

  জার্নাল ডেস্ক

ছবি: জি নিউজ

ঐতিহাসিক দিক থেকে এর গুরুত্ব অপরিসীম। ইতিহাসে বারবারই বিদেশি শক্তির মুখে পড়তে হয়েছে এই দুর্গাটিকে। ভুটানি থেকে ব্রিটিশ থেকে উদ্বাস্তু, এই দুর্গটিকে অধীনস্থ করেছে  প্রত্যেকেই। কিন্তু এর স্বাতন্ত্র্যতাই এর বৈশিষ্ট্য। আলিপুরদুয়ার জেলার বক্সা টাইগার রিজার্ভের ৮৬৭ মিটার (২৮৪৪ ফুট) উচ্চতায় অবস্থিত বক্সা দুর্গ এমনই কিছু ইতিহাসের সাক্ষী বহন করে চলেছে।

এই দুর্গের কাছাকাছি শহর বলতে আলিপুরদুয়ার। এই দুর্গের কিছু ঐতিহাসিক পটভূমি রয়েছে। জানা যায়, ভুটান রাজা ভারতের সঙ্গে তিব্বতের বিখ্যাত সিল্ক রুটের অংশ রক্ষার জন্য দুর্গটি ব্যবহার করেছিলেন।

কিন্তু পরবর্তীতে তিব্বতে অশান্তি আবহ চলাকালীন শত শত উদ্বাস্তু তৎকালীন পরিত্যক্ত দুর্গটিকে ব্যবহার করতে শুরু করে। যদিও ১৮ শতকের শেষের দিকে ব্রিটিশ সেনাবাহিনী বক্সা দুর্গ আক্রমণ করে এবং ভুটানি রাজাকে পরাস্ত করে দখল নেয় দুর্গটির।

তবে ক্ষয়িষ্ণু দুর্গটিকে পুনর্নির্মাণ করে ব্রিটিশরা। তারা এই দুর্গটিকে কারাগারে বদলে দেয়। ভারতীয় স্বাধীনতা আন্দোলনের সময় বন্দীদের এই দুর্গেই আটক করে রাখা হত বলে শোনা যায়। তাই নিঃসন্দেহে এই দুর্গের প্রতিটি ইট সেই সময়ের ইতিহাসের সাক্ষী আজও বয়ে নিয়ে চলেছে।

তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ফের ক্ষয়ে যেতে শুরু করেছে প্রাচীন এই দুর্গটি। বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গ সরকার উদ্যোগ নিয়েছে বক্সা দুর্গটিকে রক্ষণাবেক্ষণ ও পুনর্নির্মাণ করার। এই বাবদে ৪.৮২ কোটি টাকা বরাদ্দও করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নেতৃত্বাধীন সরকার। সূত্র: জি নিউজ

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএস