ঢাকা, বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ আপডেট : ৭ মিনিট আগে

ইটালির দীর্ঘতম নদীর কান্না

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ : ২৩ জুন ২০২২, ১৩:৩৬  
আপডেট :
 ২৩ জুন ২০২২, ১৪:৪৮

ইটালির দীর্ঘতম নদীর কান্না
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

৭০ বছরের মধ্যে এমন খরা আর কখনো দেখেনি ইটালির মানুষ। ভয়াবহ খরায় শুকিয়ে যাচ্ছে নদী, খাল, পুকুর, নালা। খরার ভয়াবহতা বোঝা যায় পো-এর দিকে তাকালেই। নদীটির বড় একটা অংশে এক ফোঁটা পানিও নেই।

জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলে থেকে বাংলাদেশ জার্নালের পাঠকদের জন্য ইটালির দীর্ঘতম নদী পো-এর চিত্র তুলে ধরা হলো.......

যেন বনের মাঝে প্রশস্ত এক রাস্তা: ইটালির সবচেয়ে দীর্ঘ নদী পো-এর বিভিন্ন অংশের অবস্থা এখন যেনো প্রশস্ত রাস্তা। দু পাশে রয়েছে সারি সারি সবুজ গাছপালা। মাঝে শুকিয়ে যাওয়া নদীটিকে দেখে মনে হয় যেন প্রশস্ত এক মাটির রাস্তা। ছবির এই মানুষটিকে দেখে মনে হয় যেন রাস্তা দিয়েই হেঁটে যাচ্ছেন।

পানির চিহ্ন: ওপর থেকে তোলা এই ছবিতে অবশ্য পো নদীর এখানে-ওখানে একটু একটু পানির চিহ্ন দেখা যায়৷ পানির চেয়ে অবশ্য কাদাই বেশি।

তৃষ্ণার্ত ব্যাঙ: পো নদীতে নেমে ব্যাঙটি খুব বিপদে পড়েছে৷ তৃষ্ণা মেটানোর জন্য পানি চাই, কিন্তু তার চোখ যেদিকে যায় সেদিকেই যেন শুধু মরুভূমি৷ একটু পানির জন্য বহুদূর যেতে হবে তাকে৷

বিরল দৃশ্য ধারণ: এই নারী আগে কখনো ইটালির সবচেয়ে বড় নদীটির এমন দুরবস্থা দেখেননি৷দৃষ্টিসীমানায় পানির চিহ্নই তো দেখা যাচ্ছে না৷ খরার কারণে প্রায় মৃত প্রিয় নদীটির ছবি তুলে রাখছেন তিনি।

ব্রিজের নীচেও স্থলপথ: পো নদীর এই জায়গাটায় সেতু নির্মাণ করা হয়েছিল স্থলপথে চলতে পারে এমন সব বাহনে চড়ে এপার-ওপার যাতায়াতের জন্য৷ এখন যা অবস্থা তাতে অবশ্য ব্রিজ না থাকলেও হেঁটেই যাতায়াত করা যেতো৷

মাছ ধরা: ৭০ বছরের মধ্যে ভয়াবহতম খরায় অনেক জায়গা একেবারে শুকিয়ে গেলেও কোথাও কোথাও এখনো শীর্ণ দেহ নিয়ে অস্তিত্ব কোনোরকমে টিকিয়ে রেখেছে পো৷ সেসব জায়গায় এখনো কেউ কেউ এভাবে মাছ ধরতে জাল ফেলেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত