ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ১ ভাদ্র ১৪২৯ আপডেট : ১৭ মিনিট আগে

মেসির চোখে দ্বিতীয় শিরোপা, বিশ্বকাপ হতাশা ভুলতে মরিয়া ইতালি

  স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশ : ০১ জুন ২০২২, ১২:৫৮

মেসির চোখে দ্বিতীয় শিরোপা, বিশ্বকাপ হতাশা ভুলতে মরিয়া ইতালি
ছবি- উয়েফা.কম
স্পোর্টস ডেস্ক

লড়াইটা হতে চলেছে দুই মহাদেশের দুই সেরার। কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা আর ইউরো চ্যাম্পিয়ন ইতালির মধ্যকার ফিনালিসিমার লড়াইয়ে কার মাথায় উঠবে সেরার মুকুট। তা জানতে হলে বিশ্বব্যাপী ফুটবল ভক্তদের অপেক্ষা করতে হবে আজ রাত পর্যন্ত।

সেই লড়াইয়ে শ্রেষ্ঠত্বের প্রমাণ দিতেই ‘লা ফিনালিসিমা’ ম্যাচে বুধবার দিবাগত রাত পৌনে ১টায় ঐতিহাসিক ওয়েম্বলিতে মুখোমুখি হচ্ছে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা আর ইউরো চ্যাম্পিয়ন ইতালি। ‘লা ফিনালিসিমা’ জিতে নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব উঁচিয়ে ধরতে চায় দুই মহাদেশের কুলীন দুই দলই। ম্যাচটি সরাসরি দেখা যাবে সনি টেন ওয়ানের পর্দায়।

কনমেবল আর উয়েফার সহযোগিতায় ফিফা আয়োজিত এক ম্যাচের এই বিশেষ আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের শিরোপা জিততে মুখিয়ে আছে কোপা চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক লিওনেল মেসি। কোপা আমেরিকার পর আর্জেন্টিনাকে আরও একটি আন্তর্জাতিক শিরোপা উপহার দিতে চায় রেকর্ড সাতবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী এই ফুটবলার।

দীর্ঘ ২৮ বছরের আন্তর্জাতিক শিরোপাখরা কাটিয়ে গতবছর কোপা আমেরিকা জিতেছে আর্জেন্টিনা। মেসি পেয়েছে নিজের প্রথম আন্তর্জাতিক শিরোপার স্বাদ। এবার দেশকে দ্বিতীয় শিরোপাও এনে দিতে উন্মুখ আর্জেন্টাইন অধিনায়ক।

মেসির ভাষাতে, ‘আমরা অবশ্যই এটা (লা ফিনালিসিমা) জিততে চাই। আমাদের জন্য এটা বেশ ভালো একটি পরীক্ষা হতে চলেছে। ওরা (ইতালি) ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন। তারা বিশ্বকাপে থাকলে কোনো দলই তাদের বিপক্ষে খেলতে চাইত না। এজন্য এই ম্যাচটা আমাদের উন্নতির জন্য ভালো সুযোগ। বিশ্বকাপের জন্য এটি খুবই ভালো একটি প্রস্তুতিও হবে আমাদের জন্য।’

এদিকে লিওনেল মেসির কোপা জয়ী দলকে হারিয়ে কাতার বিশ্বকাপে খেলতে না পারার ক্ষতে কিছুটা হলেও প্রলেপ দিতে চায় ইউরো জয়ী ইতালি।

জিয়ানলুইজি ডোনারুম্মা জানিয়েছেন, ‘আমাদের জন্য এটা মোটেও সহজ বছর ছিল না। তবে আমি সবসময় যেমন থাকি, কঠোর পরিশ্রম করি, এখনও তেমনই আছি। বিশ্বকাপের হতাশাটা এখন পর্যন্ত তরতাজা আছে, এরই মধ্যে ‘লা ফিনালিসিমা’র ম্যাচ, সেটা জিততে হবে আমাদের। আমাদের শিগগিরই ভালো খেলা শুরু করতে হবে, ভালো ফলাফল পাওয়া শুরু করতে হবে। আমাদের ভুলে গেলে চলবে না আমরা ইউরোতে কী করেছি। আমরা দারুণ একটা দল, আমরা অবিশ্বাস্য ফলাফল অর্জন করেছি।’

এদিকে আবার ফিনালিসিমা দিয়ে প্রায় দেড় যুগের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের ইতি টানবেন ইতালির অধিনায়ক জর্জিও কিয়েল্লিনি। বুটজোড়া তুলে রাখার আগে দলের অধিনায়ককেও নিশ্চয় শিরোপা উপহার দিয়েই বিদায় দিতে চাইবে সতীর্থরা।

২০১৯ সালের পর থেকে টানা ৩১ ম্যাচে অপরাজিত আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপের আগে আরেকটি শিরোপা জিততে মুখিয়ে আছে। ২০১৮ বিশ্বকাপের পর অনেকটা সময় আর পরিশ্রম দিয়েই ধীরে ধীরে একটি ঐক্যবদ্ধ দল গড়েছেন আর্জেন্টিনা কোচ লিওনেল স্কালোনি। কোপা জয় ছিল সেই পরিশ্রমের প্রথম ফল। সামনে বিশ্বকাপ, তার আগে ফিনালিসিমার শিরোপা জিততে পারলে আন্তর্জাতিক শিরোপা জয় তো হবেই সাথে বিশ্বকাপের আসরের জন্য বাড়তি অনুপ্রেরণাও পাবে মেসি-ডি মারিয়ারা।

এদিকে এবার বিশ্বকাপে জায়গা না পেয়ে হতাশাই ডুবেছে পুরো জাতিই। ফিলাসিমার শিরোপা জিতে সেই আফসোস মেটাতে চায় রবার্তো মানচিনির দল। তাদের সামনে অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে কিছুদিন আগে এই ওয়েম্বলিতেই সবাইকে তাক লাগিয়ে ইউরো জিতে নেয়া। একই মাঠ থেকে এবার আরেকটি জয়ের আত্মতৃপ্তি নিয়েই ফিরতে চাইবে জর্জিনহো-বার্নাদেস্কিরা।

সম্ভাব্য একাদশ

আর্জেন্টিনা: এমিলিয়ানো মার্টিনেজ, নিকোলাস ওটামেন্ডি, মলিনা, রোমেরো, অ্যাকুনা, রদ্রিগেজ, রদ্রিগো ডি পল, লো চেলসো, লিওনেল মেসি, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া, লাউতারো মার্টিনেজ।

ইতালি: জিয়ানলুইজি ডোনারুম্মা, ডি লরেঞ্জো, লিওনার্দো বোনুচ্চি, জর্জিও কিয়েল্লিনি, এমারসন, নিকোলা বারেল্লা, মার্কো ভেরাত্তি, জর্জিনহো, বার্নাদেস্কি, স্ক্যামাচ্চা, লরেঞ্জো ইনসিগনিয়ে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত