ঢাকা, শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ আপডেট : ২৬ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৭ এপ্রিল ২০২০, ১৯:৪৩

প্রিন্ট

মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, আহত ১০

মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, আহত ১০
প্রতীকী ছবি

Evaly

পাবনা প্রতিনিধি

পাবনার সাঁথিয়ায় মাইকে ঘোষণা দিয়ে দুই গ্রামের মানুষর মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার নাগডেমড়া ইউনিয়নের পাথাইলহাট গ্রামের মাঠে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের প্রায় ১০ জন আহত হয়।

আহতরা হলেন, পাথাইরহাট গ্রামের কোরবান মন্ডল, মুকুল মন্ডল, মোখলেছ মুরাদ ও ছোট পাথাইলহাট গ্রামের মান্নান, সাইফুল, নুরনবি, রুবেল। এদেরকে বেড়া ও সাঁথিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ছোট পাথাইলহাট গ্রামের আব্দুল মান্নানের পাটের ক্ষেতের মধ্যে দিয়ে পাথাইলহাটের মুকুল মন্ডলের লোকজন ঘোড়ার গাড়ি, মহিষের গাড়ি ও ভ্যান দিয়ে প্রায়দিনই ক্ষেত থেকে সদ্য তোলা পিঁয়াজ নিয়ে যেত। এতে পাট ক্ষেত নষ্ট হয়ে যাচ্ছিল।

প্রতিদিনের মত মঙ্গলবারও বিভিন্নকেম গাড়ি দিয়ে পিঁয়াজ নেয়ার সময় মান্নানের লোকজন পাটক্ষেত নষ্ট করার প্রতিবাদ করে। এতে প্রতিপক্ষের সাথে ঝগড়া এবং এক পর্যায়ে সংঘর্ষ শুরু হয়।

পরে উভয়পক্ষই মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে শক্তিমত্তা দেখাতে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মারামারি শুরু করে।

নাগডেমড়া ইউপি চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ জানান, খবর পেয়ে তিনি এবং সাঁথিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) একরামুল হক পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছালে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

সাঁথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এলাকার পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত