ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭ আপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১০ জুলাই ২০২০, ১৬:৪০

প্রিন্ট

গ্রাম্য ডাক্তারের মৃত্যুতে কেউ এলো না, সৎকারে ইউএনও

গ্রাম্য ডাক্তারের মৃত্যুতে কেউ এলো না, সৎকারে ইউএনও
গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে বিমল কৃষ্ণ ত্রিনাথ (৬০) নামে এক গ্রাম্য ডাক্তারের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকালে চিকিসাধীন অবস্থায় নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান।

এ নিয়ে গোপালগঞ্জ জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৬ জনের মৃত্যু হলো। বিমল কৃষ্ণ ত্রিনাথের বাড়ি কাশিয়ানী উপজেলার রাজপাট ইউনিয়নের তেতুলিয়া গ্রামে।

এদিকে, তার মৃত্যুর পর মরদেহ সৎকারের জন্য পরিবারের সদস্যরা ও স্বজনরা এগিয়ে না আসলেও নিজ উদ্যোগে সৎকার করেন কাশিয়ানী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

শুক্রবার দুপুর ১২টায় কাশিয়ানী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. কাইয়ুম তালুকদার ওই গ্রাম্য ডাক্তারের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, গত শনিবার বিমল কৃষ্ণ ত্রিনাথের করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়। এরপর থেকে তিনি নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে ছিলেন। আজ সকালে চিকিসাদীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

মৃত্যুর পর তার মরদেহ সৎকারের জন্য কোন লোক না থাকায় নিজ উদ্যেগে সতকার করেন কাশিয়ানী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাব্বির আহম্মেদ। স্বাস্থ্যবিধি মেনে উপজেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে গ্রামের শশ্মাণে তার দেহের সৎকার করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাব্বির আহম্মেদ বলেন, ওই ব্যক্তি করোনা আক্রন্ত হয়ে মারা যাওয়ায় পরিবারের সদস্য ও স্বজন এগিয়ে আসেননি। তাই মানবাতার তাদিগে নিজ উদ্যেগে কয়েকজনকে সাথে ওই ব্যক্তির সৎকার করি।

এ নিয়ে গোপালগঞ্জ জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৬ জনের মৃত্যু হলো। এর মধ্যে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলায় ৪ জন, টুঙ্গীপাড়া উপজেলায় ৪ জন, মুকসুদপুর উপজেলায় ৪ জন, কাশিয়ানী উপজেলায় ৩ জন ও কোটালীপাড়া উপজেলায় ১ জন রয়েছেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত