ঢাকা, রোববার, ০৭ মার্চ ২০২১, ২২ ফাল্গুন ১৪২৭ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ১১ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:২৫

প্রিন্ট

রাজবাড়ী ও পাবনাকে যুক্ত করে দ্বিতীয় পদ্মা সেতুর দাবি

রাজবাড়ী ও পাবনাকে যুক্ত করে দ্বিতীয় পদ্মা সেতুর দাবি
ছবি: প্রতিনিধি

রাজবাড়ী প্রতিনিধি

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া থেকে শুরু হয়ে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া এবং পাবনার নগরবাড়িকে যুক্ত করে ওয়াই প্যাটার্নের দ্বিতীয় পদ্মা সেতুর বাস্তবায়নের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে রাজবাড়ী জেলা বিএনপি কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। সম্মেলনের আয়োজন করে জেলা বিএনপি এবং লিখিত বক্তব্যে স্বাক্ষর করেন, রাজবাড়ী জেলা বিএনপির সাবেক দুই সভাপতি ও সাবেক দুই এমপি আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়ম ও নাছিরুল হক সাবু।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা বিএনপির সদস্য সচিব এবিএম মঞ্জুরুল আলম দুলাল, বিএনপি নেতা ভিপি গাজী আহসান হাবিব, আফসার আলী সরদারসহ শতাধিক নেতা কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

লিখিত বক্তব্যে পাঠ করেন সাবেক এমপি আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়ম। তিনি বলেন, জাজিরা-মাওয়া সেতু চালু হলে এবং অতিদ্রুত দ্বিতীয় পদ্মা সেতু নির্মিত না হলে রাজবাড়ী জেলাসহ এ অঞ্চলের ১৪টি জেলার যোগাযোগ ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন ভীষণভাবে ব্যাহত হবে। প্রকৃতপক্ষে এই এলাকা দীর্ঘদিন যাবত পিছিয়ে পড়া অঞ্চল হিসাবে অবহেলিত হয়ে আছে। অবকাঠামোগত উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য উন্নয়ন না হলে এ অধোগতি ক্রমান্বয়ে এই জনপদকে দারিদ্রপীড়িত করে তুলবে।

সে কারণে জরুরি ভিত্তিতে পদ্মা সেতু নির্মাণ করা কর্তব্য হিসাবে গ্রহণ করা প্রয়োজন। রাজবাড়ী জেলার সাথে পাবনা জেলা ও উত্তরবঙ্গের যোগাযোগটিও গুরুত্বপূর্ণ বলে বিবেচিত হয়ে আসছে। পদ্মা সেতু নির্মিত হওয়ার সাথে এ বিষয়টিও বিবেচনার দাবি রাখে। বর্তমানে এ অঞ্চলের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে রাজবাড়ী জেলা এবং ১৪টি জেলা ও পাবনা জেলার সমস্বিত অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড বিবেচনায় এনে সেতু নির্মাণের বিষয়টি গভীরভাবে উপলব্ধি করতে হবে।

সুতরাং আমাদের জোড় দাবি প্রস্তাবিত দ্বিতীয় পদ্মা সেতু নির্মাণের ক্ষেত্রে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ার সাথে পাবনার নগরবাড়ি সংযুক্ত করে ওয়াই-টাইপ সেতু নির্মাণের ব্যবস্থা নেয়া হোক। ১৪টি জেলা ও পাবনা এবং উত্তরবঙ্গের সঙ্গে সংযুক্ত করে দ্বিতীয় পদ্মা সেতু নির্মাণ করা হলে রাজবাড়ী জেলার আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন গতিশীল হবে এবং শিক্ষা, সংস্কৃতি ও নানা অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে এক যুগান্তকারী সম্ভাবনা উন্মোচিত হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত