ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ৩০ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ৫ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল ২০২১, ১১:৫৩

প্রিন্ট

চট্টগ্রামে করোনায় মোট মৃত্যু ৪৫২

চট্টগ্রামে করোনায় মোট মৃত্যু ৪৫২
প্রতীকী ছবি

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

বিশ্বব্যাপী করোনার তাণ্ডব কোনোভাবেই থামছে না। দিন দিন আরো ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে এ ভাইরাস। প্রতিদিনই দীর্ঘ হচ্ছে আক্রান্ত ও মৃতের তালিকা। মহামারি এ ভাইরাসের নতুন নতুন ধরন মানুষের মনে আতঙ্ক বাড়িয়ে দিয়েছে। করোনার টিকা আবিষ্কার হলেও এখনো আতঙ্কে বিশ্ববাসী। এরই মধ্যে চট্টগ্রামে করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৪৫২ জনে এবং আক্রান্ত হয়েছে ৪৬ হাজার ৬৮২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া একদিনে শনাক্ত হয়েছে ৩০২ জন। একই সাথে সংক্রমণ হার।

চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে শনিবার প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়।

শুধু এপ্রিলের ১৭ দিনে চট্টগ্রামে মৃত্যু হয়েছে ৬৩ জনের। শনাক্ত ৬ হাজার ছাড়িয়েছে। অথচ ফেব্রুয়ারি মাসে মোট শনাক্ত ছিলো ১ হাজার আট শ’র বেশি কিছু। মানুষের অবহেলা ও উদাসীনতা সংক্রমণ বেড়েছে। একই সাথে মানুষের মাস্ক পরতে অনীহা। এসব কারণে সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির পাশাপাশি মৃত্যু বেড়ে চলেছে।

শনাক্ত কমেছে মূলত কম পরীক্ষার কারণে। গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে ১ হাজার ২৬ নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তাতে শনাক্ত হন ৩০২ জন। সংক্রমণ হার ৩০ শতাংশ। এতে মোট করোনা আক্রান্ত দাঁড়িয়েছে ৪৬ হাজার ৬৮২ জনে। একই সাথে মোট মৃত্যু হয়েছে ৪৫২ জনের। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নগরের ২২৬ জন এবং উপজেলায় ৭৬ জন।

চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ছয়টি ল্যাবে ১ হাজার ২৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ২১৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৭৬ জন, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল এন্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) ল্যাবে ২৬১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫০ জন, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ১৭০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৯৩ জন এবং চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ৯৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৩০ জনের দেহে করোনার অস্তিত্ব মিলেছে।

এ ছাড়া ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ২৫৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৪১ জন ও চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ২৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১২ জনের দেহে করোনার জীবাণু ধরা পড়েছে।

তবে এদিন কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাব, শেভরণ ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরি ল্যাব ও জেনারেল হাসপাতালের রিজিওনাল টিবি রেফারেল ল্যাবরেটরিতে (আরটিআরএল) কোনো নমুনা পরীক্ষা হয়নি।

এদিকে, চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসের টিকার দ্বিতীয় ডোজ প্রয়োগ শুরু গত ৮ এপ্রিল থেকে এ পর্যন্ত ৬ দিনে চট্টগ্রাম নগরীর ১০টি এবং জেলার ১৪টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ফৌজাদারহাটের বিআইটিআইডি কেন্দ্রে করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৭৫ হাজার ৪৪৭ জন।

বৃহস্পতিবার ৬ষ্ঠ দিনে করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ১৫ হাজার ৬৬৭ জন। এর মধ্যে নগরীর ৮ হাজার ৩৫০ জন এবং উপজেলার বাসিন্দা ৭ হাজার ৩১৭ জন। এর আগে গত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে চট্টগ্রামে করোনার প্রথম ডোজ দেয়া হচ্ছে। গত বৃহস্পতিবারও অনেকে করোনা টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য মতে, বৃহস্পতিবার নগরীর ৪৬৪ জন ও উপজেলার ২৪৭ জন প্রথম ডোজ গ্রহণ করেন। এ পর্যন্ত মোট ৪ লাখ ৪২ হাজার ৬৭১ জন প্রথম ডোজ গ্রহণ করেন। এর মধ্যে সিটি করপোরেশন এলাকার ২ লাখ ৪৬ হাজার ৮৬৭ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ১ লাখ ৯৫ হাজার ৮০৪ জন করোনার প্রথম ডোজ গ্রহণ করেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত