ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ২ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে

প্রকাশ : ০২ মার্চ ২০২১, ২১:৩৯

প্রিন্ট

৫৩ বছরেও রুগ্ন ওয়েবসাইট তিতুমীরে

৫৩ বছরেও রুগ্ন ওয়েবসাইট তিতুমীরে

মামুন সোহাগ

প্রতিষ্ঠার প্রায় ৫৩ বছর পেরোলেও রাজধানীর সরকারি তিতুমীর কলেজে তৈরি হয়নি মানসম্মত ওয়েবসাইট। নামমাত্র যে একটি সাইট আছে সেটা নিয়ে শিক্ষার্থীদের রয়েছে বিস্তর অভিযোগ।

ওয়েবসাইট গিয়ে দেখা যায়, শিক্ষকদের নাম, ছবি, পদের ঘর থাকলেও তা পূরণ করা নেই। পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের জন্য নোটিশ দেয়ার নিয়ম থাকলেও সেটা নিয়মিত হালনাগাদ করা হয় না।

করোনার সময়ে দেশের অন্যান্য শিক্ষার্থী প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে অনলাইন ক্লাসের ভিডিও লিংক দেয়া হয়। তবে তিতুমীর কলেজের সাইট ঘুরে এমন কিছু পাওয়া যায়নি।

এদিকে কলেজের সাবেক উপাধ্যক্ষ বদলি হয়ে রাজশাহী নিউ গর্ভ: ডিগ্রি কলেজে বদলি হলেও ওয়েবসাইটে ২১তম শিক্ষক পরিষদের সহ-সভাপতির স্থলে প্রফেসর ড. মোসা. আবেদা সুলতানার নাম বহাল রয়েছে।

তিতুমীর কলেজ আইটি সোসাইটির প্রধান আরিফ হোসাইন রাজন বলেন, তিতুমীর কলেজের ওয়েবসাইটটি একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট হওয়া স্বত্বেও আমরা এর ডোমেইন নাম www.titumircollege.gov.bd। কিন্তু gov.bd এইটা কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ডোমেইন হতে পারে না। সাধারণত edu.bd অথবা ac.bd হওয়ার কথা ছিল। edu.bd অথবা ac.bd এইগুলো স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট এর জন্য প্রযোজ্য। ওয়েবসাইট ডোমেইন এক্সটেনশনের এত বড় ভুল উপেক্ষা করে আমরা যখন আমাদের কলেজ ওয়েবসাইটে প্রবেশ করি, তখন একজন তিতুমীরের শিক্ষার্থী হিসেবে আমরা হতাশ হয়। বেশিরভাগ সময় পেজ ভিজিট করলে সেখানে কোনো তথ্য পাওয়া যায় না।

আরিফ আরো জানান, ওয়েবসাইটে নেই, শিক্ষকদের পরিচয় পর্বসহ গুরুত্বপূর্ণ তথ্যও নেই। বেশিরভাগ সময় আপডেট নোটিশগুলো দেয়া হয় না। এছাড়া ওয়েবসাইটে আমাদের শিক্ষকদেরই কোনো পরিচয় নেই। তাই ওয়েবসাইট থেকেও আমরা কোনো উপকার পাচ্ছি না।

তিতুমীর কলেজের পরিসংখ্যান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. গালিব হোসাইন বলেন, এ বিষয়টি নিয়ে আমারও খুব কষ্ট আছে। ওয়েবসাইটে প্রত্যেক শিক্ষকের নিজস্ব আইডি দেয়ার অপশন আছে। তবে দুর্ভাগ্যের বিষয় হাতে গোনা কয়েকটি ডিপার্টমেন্ট ছাড়া কেউই সেগুলোর যথাযথ ব্যবহার করে না, তথ্যও দেয় না।

তিতুমীর কলেজের ওয়েবসাইটের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে থাকা এক শিক্ষক জানান, আমাদের শিক্ষকদের ফেসবুক গ্রুপে বলেছিলাম, আপনারা ক্লাসের ভিডিওগুলো আপনাদের নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে দেন। তারপর সেই লিংকটা শুধু ওয়েবসাইটে দিয়ে দেন। তবে শিক্ষকরা এসবের কিছুই দেন না।

তিনি জানান, তিতুমীর কলেজের ওয়েবসাইটটি হালনাগাদ বলতে নোটিশ দেয়া হলেও এ বছর প্রোগ্রামিং হালনাগাদ করা হয়নি৷

এ নিয়ে তিতুমীর কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আশরাফ হোসেন বলেন, এ বিষয়ে দায়িত্বরত শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলেছি। ওয়েবসাইটে যে তথ্য আছে এটা যথেষ্ট। তবে অভিযোগ থাকলে দায়িত্বরত শিক্ষকদের সাথে শিক্ষার্থীরা যেনো কথা বলে। পাশাপাশি কলেজের ওয়েবসাইট নিয়ে অভিযোগের বিষয়টি দেখবেন বলেও জানান তিনি।

সূত্রমতে, গত তিনমাস আগে অধ্যক্ষের নির্দেশে ওয়েবসাইট অটোমোশনের জন্য একটা কমিটি গঠিত হয়েছে। যেটার বাস্তবায়ন হলে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর নিজস্ব আইডি থাকবে। যার ফলে লগ-ইন করে শিক্ষার্থীরা তাদের নিজস্ব তথ্যগুলো দেখতে পারবে। পাশাপাশি খুব সহজেই দেখা যাবে বিভাগীয় কাজে শিক্ষার্থীদের জমা টাকা, ক্লাস-পরীক্ষার সব নোটিশসহ যাবতীয় তথ্য।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত