ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ৩ কার্তিক ১৪২৬ আপডেট : ১৭ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:৩২

প্রিন্ট

টানাপোড়েনের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রে গেলেন জারিফ

টানাপোড়েনের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রে গেলেন জারিফ
অনলাইন ডেস্ক

সৌদি তেল শোধনাগারে হামলাকে কেন্দ্র করে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তেহরানের টানাপোড়েনের মধ্যেই শুক্রবার সকালে নিউইয়র্কের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৪তম অধিবেশনে অংশ নিতে তিনি এই সফর শুরু করেছেন বলে জানা গেছে।

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানিও ওই সম্মেলনে অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে। তবে তিনি কবে নাগাদ যুক্তরাষ্ট্র সফর শুরু করবেন সে বিষয়ে এখনো কিছু জানা যায়নি।

যুক্তরাষ্ট্রে সফর শুরু করার মাত্র একদিন আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জারিফ এক টুইটবার্তায় অভিযোগ করে বলেছিলেন, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও ইরানের প্রতিনিধিদলের সদস্যদের ভিসা দিতে বিলম্ব করছেন।

মধ্যপ্রাচ্যে ব্যাপক উত্তেজনার মধ্যেই এবার জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশন হতে যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি আরামকোর দুটি বৃহৎ তেল স্থাপনায় ড্রোন হামলা চালানো হয়। ওই হামলার পর রিয়াদের তেল উৎপাদন অর্ধেকে নেমে আসে। ফলে বিশ্ব বাজারে তেলের দাম বেড়ে যায়। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এই হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করে এর প্রতিশোধ নেয়ারও হুমকি দিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের তরফে স্যাটেলাইট ছবি প্রকাশ করে হামলার নেপথ্যে ইরানের সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ হাজির করা হয়।

বুধবার জেদ্দায় অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে তেলক্ষেত্রে হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও । তিনি বলেন, ইরাকের দিক থেকে হামলা হয়েছে এমন কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। বরং ইরানই সৌদি তেল কোম্পানি আরামকোর দুটি তেল স্থাপনায় হামলা চালিয়েছে।

তবে শুরু থেকেই সৌদি তেল শোধনাগারে হামলার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে আসছে ইরান সরকার। ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা এ হামলা দায় স্বীকার করেছে। শুধু তাই নয়, তারা সৌদি তেল শোধনাগারে আরো হামলার হুমকিও দিয়েছে। এজন্য সৌদি তেল স্থাপনা থেকে সব বিদেশিকে সরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ইয়েমেনের ইরান সমর্থিত শিয়াপন্থী হুথি বিদ্রোহীরা।

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত