ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ অাপডেট : ২ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ১৫ মে ২০১৯, ১২:২৬

প্রিন্ট

সঙ্গী ছাড়াই কি ভাল থাকবেন?

সঙ্গী ছাড়াই কি ভাল থাকবেন?
জার্নাল ডেস্ক

আমাদের চারপাশেই প্রেম, ভালোবাসা আর সম্পর্কের বন্ধন। এমন বন্ধন এড়িয়ে একা থাকা এবং একা থেকে আনন্দে থাকা কিন্তু কম কথা নয়। অনেকের মতে, সঙ্গী ছাড়া জীবন কাটানো প্রায় অসম্ভব। দিনের শেষে বাড়ি ফিরে কারো সাথে কথা বলা হোক বা ঝগড়া, পাশে চাই এক জনকে। একা থাকার ভয় তাই মানসিক ভাবেই তাড়া করে বেশির ভাগ মানুষকে।

কিন্তু তথ্য অন্য কথা বলছে। সারা পৃথিবী জুড়ে প্রতিদিন বাড়ছে একা মানুষের সংখ্যা। একা থাকা একটা শিক্ষা, এমনটাই মত বিভিন্ন মনোবিদ ও গবেষকদের। একা থাকা লোকজনের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে বলে মত মনোবিদদের।

শুধু গবেষণাই নয়, বিশেষজ্ঞরাও দাবি করছেন, যারা কোনো বিশেষ সম্পর্কে নেই, অর্থাৎ সিঙ্গেল, তারা বেশিদিন সুস্থভাবে বাঁচেন। সিঙ্গেল থাকেলে আরো কী কী উপকার হয়, সেই ব্যাপারগুলো উঠে এসেছে বিভিন্ন জরিপে।

আমেরিকান ব্যুরো অফ লেবার স্ট্যাটিসটিকস-এর একটি জরিপ অনুযায়ী, সিঙ্গেলরা সামাজিক সম্পর্ক বজায় রাখতে বেশি দক্ষ হয়। এদের সঙ্গে বন্ধুদের সম্পর্কও ভাল থাকে। বিশেষজ্ঞদের মতে, বন্ধুদের সম্পর্ক বজায় রাখার ফলে এদের মানসিক অবস্থাও ভাল থাকে।

সাংসারিক নানা সমস্যায় পড়তে হয় না, নিজেদের মনের মতো করে দিন কাটাতে পারে বলে মানসিক চাপ থেকে এরা মুক্ত থাকেন। জার্নাল অফ ফ্যামিলি ইস্যু-র একটি জরিপ মতে, যাদের সঙ্গী আছেন তাদের তুলনায় সিঙ্গেলদের শারীরিক ওজন কম থাকে।

ওয়েস্টার্ন ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটি-র আর একটি জরিপ অবশ্য দাবি করেছে, সম্পর্ক বিচ্ছেদের পরে অনেকেরই অনেকটা ওজন কমে যায়। জরিপ থেকে দেখা যাচ্ছে যাদের কোনো সঙ্গী নেই, তাদের ঘুম ভাল হয়। বাড়তি চাপ, নানা দায়িত্ব, অন্যের জন্য উদ্বেগ এসব থাকে না বলে তাদের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য ভাল থাকে।

কোনো সম্পর্কে না থাকলে, নিজের সঙ্গে সময় কাটানোরও সুযোগ বেশি থাকে। সম্পর্কের ঝামেলা থেকে দূরে রেখে নিজের শখও বজায় রাখতে পারেন। একা থাকার ফলে নিজের কাজটুকু গুছিয়ে ফেলেই ঘন ঘন বেড়ানোর সুযোগ থাকে। পরিবারের সকলের ছুটি ও কাজের সঙ্গে মানিয়ে নিতে হয় না।

একা মানুষরা একটু বেশি সাবধানী হন বলে দাবি আমেরিকান স্কুল অব মেডিসিন-এর। সঙ্গে কেউ থাকেন না বলেই তারা নিজের প্রতি একটু বেশি যত্নবান হন। অসুস্থতার সময় বা অন্য কোনো দরকারে কীভাবে তা সামাল দেবেন, সে সব নিয়ে অনেক আগে থেকেই পরিকল্পনা করে রাখেন।

আরএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close