ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭ আপডেট : ৭ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৮:১৬

প্রিন্ট

ছুরিকাঘাতে মেয়েকে হত্যা, বাবার আত্মহত্যার চেষ্টা

ছুরিকাঘাতে মেয়েকে হত্যা, বাবার আত্মহত্যার চেষ্টা
নিজস্ব প্রতিবেদক

বাবা তার দুই সন্তানকে গলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে নিজের গলাকেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। রোজা (৭) নামে মেয়েটি হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যায়।

বুধবার বিকালে হাজারীবাগ বটতলার বোরহানপুরের ১০ নম্বর গলির ৬৭/২ নম্বর বাড়িতে এঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা আহত অবস্থায় বাবা জাবেদ (৪৫), ছেলে লিজন (১৪), মেয়ে রোজাকে (৭) উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে মেয়েটিকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

জাবেদ ও তার ছেলে রিজন রাব্বী আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসা উদ্ধারকারীদের একজন জানিয়েছেন, বুধবার বিকালে ওই বাড়িতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়েছিল। এতে ক্ষুব্ধ স্ত্রী বাসা থেকে বের হয়ে যান। পরে স্বামী এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে তার ধারণা।

রিজনের চাচা মেহেদী হাসান জানান, হাজিরবাগ বটতলা বাজার এলাকায় টিনশেড দোতলা একটি বাড়িতে জাবেদ দুই সন্তানকে নিয়ে থাকতেন। বাসার নিচে তার একটি কাপড়ের দোকান রয়েছে। জাবেদের স্ত্রী রিমা আক্তার বাসার নিচে ছিলেন। হঠাৎ তিনি চিৎকার শুনে ঘরে ঢুকে দেখেন তিনজন আহত অবস্থায় পড়ে আছে। তাদের তিন জনের গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাত ছিল। তাদের দ্রুত উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক রোজাকে মৃত ঘোষণা করেন। তবে কী কারণে এ ঘটনা ঘটেছে তা জানাতে পারেননি মেহেদী।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া জানান, আহত অবস্থায় জাবেদসহ তার দুই সন্তানকে হাসপাতালে নিয়ে এলে তাদের মধ্যে রোজাকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। জাবেদকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নাক কান গলা বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। ছেলে ও বাবার অবস্থা আশংকাজনক।

হাজারীবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজিদুর রহমান জানান, ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। কী কারণে এ ঘটনা ঘটেছে তা জানতে তদন্ত চলছে।

রাজধানীতে দোকানিকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

বাংলাদেশ জার্নাল/এসএস/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত