ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ২৪ চৈত্র ১৪২৬ আপডেট : ১৭ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৩:০৯

প্রিন্ট

ক্যাচ মিসের মাশুল গুনছে বাংলাদেশ

ক্যাচ মিসের মাশুল গুনছে বাংলাদেশ

Evaly

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রথম সেশনে বাংলাদেশের প্রাপ্তি বলতে গেলে সফরকারীদের ১ উইকেট। কিন্তু বাংলাদেশের বোলারদের বিপক্ষে জিম্বাবুয়ে দিলেন ধৈর্যের পরীক্ষা। ১ উইকেট হারানোর পর এরভিন-মাসভাউরে ব্যাটে প্রতিরোধও গড়ে ফেলেছে জিম্বাবুয়ে। লাঞ্চ বিরতির পর ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় শতক তুলে ফেলেছেন মাসভরে-আরভিন। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৪৪ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ ১০১ রান। প্রিন্স মাসভরে ৫৯ আর ক্রেইগ আরভিন ৩৩ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে আছেন।

প্রথম ১০ ওভার শেষে মাত্র ৯ রান তুলেছে সফরকারী জিম্বাবুয়ে। প্রথম ঘন্টাটা ছিল বাংলাদেশের। আবু জায়েদ রাহী আর ইবাদত হোসেন শুরু থেকেই ছিলেন ধারাবাহিক, দুই ওপেনারকে ভুগিয়ে গেছেন। শেষ পর্যন্ত কেভিন কাসুজাকে ফিরিয়ে রাহী পেয়েছেন পুরস্কার।

শুরুতে ধাক্কা খাওয়ার পর মাটি কামড়ে পড়ে আছেন প্রিন্স মাসভাউরে এবং অধিনায়ক ক্রেইগ আরভিন। দুজনই একটু স্বছন্দ হয়ে রান তোলা শুরু করেছেন। এ দিকে, বাংলাদেশ আরেকটি ব্রেক থ্রুর অপেক্ষায়। এর মধ্যেই জিম্বাবুয়ের সেট ব্যাটসম্যানের ক্যাচ মিস করলো বাংলাদেশ। দলীয় ১০০ রানে নাঈমের বলে মাসভরের ক্যাচ উঠলেও সেটি তালুবন্দী করতে পারেননি স্লিপে দাঁড়ানো শান্ত। জীবন পাওয়ার পর এখন আরো ধীরেসুস্থে খেলছে জিম্বাবুয়ে।

এই ম্যাচে দুই পেসার ও দুই স্পিনার নিয়ে একাদশ সাজিয়েছে বাংলাদেশ। পেসার দুজন হলেন আবু জায়েদ রাহি ও ইবাদত হোসেন। স্পিনার দুজন হলেন তাইজুল ইসলাম ও ইবাদত হোসেন। পাকিস্তান সফরে না যাওয়া মুশফিকুর রহিম এই একাদশে আছেন।

টেস্টে সর্বশেষ ছয় ম্যাচেই হারের স্বাদ নিয়েছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে পাঁচটি ছিল ইনিংস ব্যবধানে হার। কোনোরকম প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছাড়াই ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ তিন টেস্টেই ইনিংস ব্যবধানে হারে টাইগাররা। টেস্ট ক্রিকেটে এমন পারফরম্যান্সে চিন্তায় পড়েছে বাংলাদেশ। তাই ঘুরে দাঁড়াতে চাইবে মুমিনুলের নেতৃত্বাধীন দল।

অপরদিকে সদ্যই দেশের মাটিতে শ্রীলংকার বিপক্ষে দুই ম্যাচের সিরিজে দারুণ প্রতিন্দ্বন্দ্বিতা করেছে জিম্বাবুয়ে। ১-০ ব্যবধানে সিরিজ হারলেও, জিম্বাবুয়ের লড়াকু মনোভাব ছিল চোখে পড়ার মতো।

এ ম্যাচের মধ্যে দিয়ে আন্তর্জাতিক ম্যাচের সেঞ্চুরি পূর্ণ করল বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে। গত ২২ বছরে দুই দল তিন ফরম্যাট মিলিয়ে ৯৯ আন্তর্জাতিক ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে। আজ মিরপুরে পূর্ণ হল সেঞ্চুরি। ৯৯ ম্যাচে বাংলাদেশ জিতেছে ৫৭ ম্যাচে, জিম্বাবুয়ের জয় ৩৯, ড্র হয়েছে তিন ম্যাচ। বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে দুই দলই কোনো দলের বিপক্ষে এত ম্যাচ খেলেনি। বাংলাদেশ দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৭৯ ম্যাচ খেলেছে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। জিম্বাবুয়ে ৮৭ ম্যাচ খেলেছে পাকিস্তানের বিপক্ষে।

বাংলাদেশ একাদশ:

তামিম ইকবাল, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, লিটন দাস (উইকেটরক্ষক), নাঈম হাসান, তাইজুল ইসলাম, আবু জায়েদ রাহী, এবাদত হোসেন।

জিম্বাবুয়ে একাদশ:

প্রিন্স মাসভাউরে, কেভিন কাসুজা, ক্রেইগ আরভিন (অধিনায়ক), ব্র্যান্ডন টেলর (উইকেটরক্ষক), টিমিসেন মারুমা, সিকান্দারা রাজা, রেগিস চাকাভা, টিনোটেন্ডা মোটোম্বোডজি, ডোনাল্ড তিরিপানো, এইন্সলে এনডিলোভু, ভিক্টর নায়াউচি।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত