ঢাকা, বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ১২ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল ২০২১, ০৩:৩৭

প্রিন্ট

মরিস বীরত্বে প্রথম জয় পেলো রাজস্থান

মরিস বীরত্বে প্রথম জয় পেলো রাজস্থান

স্পোর্টস ডেস্ক

জয়দেব উনাদকাট, মোস্তাফিজুর রহমানদের বাঁহাতি পেসে দিল্লি ক্যাপিটালসকে ১৪৭ রানে বেধে রেখেছিল রাজস্থান রয়্যালস। জবাব দিতে নেমে শুরুটা একদমই ভালো হয়নি রাজস্থানের। ১৩ থেকে ১৭, এই চার রানেই তারা হারায় তিন ব্যাটসম্যানকে। আর পঞ্চাশ পেরুনোর আগেই ৫ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে প্রায় ছিটকে পড়েছিল তারা। সেই অবস্থা থেকে ডেভিড মিলারের ফিফটি আর ক্রিস মরিসের শেষের ঝড়ে রোমাঞ্চকর জয় পেয়েছে সঞ্জু স্যামসনের দল।

শুরুর ধাক্কা সামাল দেন দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যান ডেভিড মিলার। ৭ চার ও ২ ছক্কায় ৪৩ বলে ৬২ রান করে আবেশ খানের শিকার হন তিনি। তবে তার এমন ইনিংসের পরও রাজস্থানের হারের শঙ্কা ছিল। ৪ ছক্কায় ১৮ বলে ৩৬ রানে অপরাজিত থেকে শেষ পর্যন্ত সেই শঙ্কা দূর করেন ক্রিস মরিস।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে গিয়ে উনাদকাট, মোস্তাফিজদের তোপে পড়ে দিল্লি। প্রথম তিন উইকেটের সবগুলাই নেন উনাদকাট। তার বল থেকে রান বের করাও যায়নি। পাওয়ার প্লে পেরিয়ে যাওয়ার পর বল হাতে পান মোস্তাফিজ। পঞ্চম বলেই মিলে উইকেট। দারুণ এক অফ কাটারে কাবু হয়ে মিড অফে ক্যাচ দেন মার্কাস স্টয়নিস। প্রথম ওভারে দেন মাত্র ১ রান।

১২তম ওভারে ফিরে এক বাউন্ডারিতে দেন আরও ৮ রান। এরপর মোস্তাফিজের ডাক পড়ে একদম ইনিংসের শেষ দিকে। এক বাউন্ডারিতে ওই ওভার থেকেও দেন ৮ রান। ১৯তম ওভারে দিয়েছেন সবচেয়ে বেশি ১২ রান। তবে ওই ওভার থেকেও তুলেছেন এক উইকেট। তার প্রথম বলে টম কারান বাউন্ডারি মারার পর দ্বিতীয় বলেই হয়েছেন বোল্ড।

৩৭ রানে ৪ উইকেট পড়া দিল্লিকে লড়াইয়ের পুঁজি এনে দিতে বড় ভূমিকা নেন অধিনায়ক রিশভ পান্ত। ৩২ বলে ৫১ রান করেছেন তিনি।

শেষদিকে ললিত ইয়াদবের ২৪ বলে ২০ ও টম কারানের ১৬ বলে ২১ রানে ভর করে ১৪৭ রানের সংগ্রহ পায় দিল্লি। ৪ ওভারে মাত্র ১৫ রান দিয়ে তিন উইকেট নিয়েছেন উনাদকাট। আর ৪ ওভারে ২৯ রান দিয়ে দুই উইকেট নিয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান।

বাংলাদেশ জার্নাল/আর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত