ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:৫৯

প্রিন্ট

মাহমুদউল্লাহর কণ্ঠে প্রতিশোধের আগুন

মাহমুদউল্লাহর কণ্ঠে প্রতিশোধের আগুন
স্পোর্টস ডেস্ক

বিশ্বকাপ থেকেই ছন্দে নেই বাংলাদেশ। একের পর এক ম্যাচ হেরে বাংলাদেশ শিবিরে হতাশা। এছাড়াও সিনিয়ররাও ঠিকমত পারফরম্যান্স করতে পারছে না। বিশ্বকাপে সাকিব ছন্দে থাকলেও এরপর থেকে সাকিবের ব্যাটে রান নেই। সম্প্রতি ১ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে আফগানদের বিপক্ষে বাজেভাবে হেরেছে বাংলাদেশ। ত্রিদেশীয় সিরিজের ম্যাচেও আফগানদের বিপক্ষে কুলাতে পারছে না সাকিবরা।

সিরিজে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে সাকিবদের উড়িয়েই দিয়েছে আফগানিস্তান। এরপর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চট্টগ্রাম পর্বের প্রথম ম্যাচে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ব্যাটে ভর করে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। ৩৯ রানে জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ফাইনালে পা রেখেছে টাইগাররা। তবে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচের আগে আফগানিস্তানের বিপক্ষে নিজেদের আরেকবার ঝালিয়ে নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে সাকিব আল হাসানরা।

ফাইনালের আগে আফগান ভয় কাটাতে চায় বাংলাদেশ। তাই এই ম্যাচটিকে ফাইনালের ‘রিহার্সাল’ হিসেবে দেখছেন মাহমুদউল্লাহ। তিনি জানালেন, ‘আমি মনে করি, পরের ম্যাচে আমাদের ফোকাস দেওয়া উচিৎ। আমাদের মনে রাখা প্রয়োজন যে, র‌্যাংকিংয়ে তারা আমাদের ওপরে আছে। আমরা যদি জিততে চায় তবে আমাদের সেরা ক্রিকেটটাই খেলতে হবে। পরের ম্যাচের জন্য আমাদের আত্মবিশ্বাস দরকার যাতে আমরা ম্যাচটিতে ভাল খেলতে পারি। আর ফাইনালে সেটিই আমাদের এগিয়ে রাখবে।’

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৪১ বলে ঝড়ো ৬২ রানের ইনিংস খেলে দলকে দুঃসময়ে জয় এনে দিতে পেরে তৃপ্ত তিনি। দলও যে জয়ের জন্য কতটুকু মরিয়া ছিল সে কথায় জানালেন মাহমুদউল্লাহ, ‘আজ সকলে জয়ের জন্য ক্ষুধার্ত ছিল। টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে শুরু করে সাকিব, সবাই জয় চাইছিল। বিশেষ করে সাকিব জয়ের জন্য খুব মরিয়া ছিল।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে পাঁচটি টি-টুয়েন্টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। একটা বাদে হেরেছে বাকি চার ম্যাচ। আফগানিস্তানকে বাংলাদেশ হারিয়েছিল ২০১৪ সালের মার্চে। এরপর শুধুই হার। পাঁচ বছরের এ খরা কাটাতেই গ্রুপপর্বের ম্যাচটা বাংলাদেশের জন্য এতটা গুরুত্বপূর্ণ।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত