ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ০২ জুলাই ২০১৯, ১৪:১৮

প্রিন্ট

ন্যাপকিন দ্রুত পরিবর্তনে থাকবেন সুস্থ

ন্যাপকিন দ্রুত পরিবর্তনে থাকবেন সুস্থ
জার্নাল ডেস্ক

পিরিয়ড নারীদের স্বাভাবিক শরীরবৃত্তীয় ক্রিয়ার জরুরি অংশ। তাই পিরিয়ড চলাকালীন পরিচ্ছন্নতা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই বিধি নিয়ম শুধু সুস্থ থাকার জন্য, এমন ভাববেন না। ঋতুকালীন সময়ে আপনি যতটা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন তত সংক্রমণের মতো জটিল সমস্যা আপনার থেকে দূরে যাবে।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে গেলে প্রথমেই আসে প্যাড বা ন্যাপকিন বদলের বিষয়টি। পিরিয়ড চলাকালীন সময়মতো প্যাড বদলাচ্ছেন তো?

এই কাজে গুরুত্ব না দিলে মারাত্নক সংক্রমণ থেকে শুরু করে মূত্রনালিতে সংক্রমণ, ব়্যাশের মতো সমস্যায় ভুগতে পারেন। অন্তত চার ঘণ্টা পরপর স্যানিটারি ন্যাপকিন বদলে ফেলুন। তিন ঘণ্টা পর বদলে ফেলতে পারলে আরো ভাল হয়। তবে চার ঘণ্টার বেশি একেবারেই না।

সাধারণত রক্ত প্রবাহের উপরে নির্ভর করে প্যাড বদলের সময়সীমা। এই প্রবাহ এক একজনের ক্ষেত্রে এক এক রকম। প্রবাহমাত্রা বেশি থাকলে অস্বস্তি এড়াতে আগেভাগেই প্যাড বদলে নিন। তবে প্রবাহমাত্রা কম থাকলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা একই প্যাড ব্যবহার করবেন না। এতে শরীরের ক্ষতি হতে পারে।

পিরিয়ডের রক্ত শরীরের জন্য অপকারী। তাই বেরিয়ে আসা রক্তের সঙ্গে জীবাণুও থাকে। যতক্ষণ তা আপনার শরীরে সঙ্গে লেগে থাকবে ততক্ষণ বাইরের আবহাওয়ার সঙ্গে মিশে সংক্রমণের মাত্রা বাড়িয়ে দেবে।

আর হ্যান্ডওয়াশ দিয়ে সব সময়ে হাত ধুয়ে নিন। এরপরও হাতে কোনো রকম ব়্যাশ দেখলেই জরুরি ভিত্তিতে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

আরএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত