ঢাকা, শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ আপডেট : ২৬ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৮ মার্চ ২০২০, ১৮:৪৮

প্রিন্ট

লক্ষ্মীপুরে

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কোরআন খতম

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কোরআন খতম

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মতশবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে লক্ষ্মীপুরে ৭ শত জন শিশু হাফেজ এর সমন্বয়ে পবিত্র কোরআন খতম অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার দিন ব্যাপী শহরের তমিজউদ্দিন ঈদগাহ উদ্যানে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. আবু তাহেরের উদ্যোগে উক্ত কোরআন খতমের আয়োজন করা হয়। এদিন সকাল থেকে শহরের জালালীয়া মদ্রাসার শিক্ষার্থী ৭শত শিশু হাফেজ কোরআন খতম শুরু করেন।

কোরআন খতম শেষে বিকেলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রূহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মুনাজাত করা হয়। এসময় একই সঙ্গে মরনব্যাধি করোনা ভাইরাস এর কবল থেকে সারা বিশ্বের সকল মানুষের মুক্তি কামনা করা হয়। মুনাজাত পরিচালনা করেন লক্ষ্মীপুর আজিম শাহ জামে মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মহিউদ্দিন।

এসময় মেয়র মো. আবু তাহেরে, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা যুবলীগের সভাপতি এ কে এম সালাহউদ্দিন টিপু, পৌর কাউন্সিলর আবুল খায়েল স্বপন, যুবলীগ নেতা তফাজ্জল হোসেন আজাদসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার বিপুল সংখ্যক মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

মুনাজাত শেষে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনায় পৌর মেয়র মো. আবু তাহের বলেন, ‘আমার পরম সৌভাগ্য, আমি মুজিব যুগে জন্মেছি। তাকে চোখে দেখেছি। তার সাহচর্য্য পেয়েছি। এখন তার জন্মশতবার্ষিকী পালন করছি। আমার মতো সৌভাগ্যবান আর কতজন আছেন। যুগে যুগে মহামানব জন্ম নেন না। যারা তার সাহচর্য্য পেয়েছেন তারা হলেন মহাসৌভাগ্যবান। এই অর্থে আমার মতো সৌভাগ্যবান কতজন আর বেঁচে আছেন এখন। বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে আজ তাঁর ১০০ বছর পূর্ণ হতো, তিনি এখন আমাদের মাঝে নেই। দেশের স্বার্থে নিজেকে নিঃস্বার্থ বিলিয়ে দেয়ায় তিনি প্রতিক্রিয়াশীলদের হাতে অকালে শহীদ হন। তাঁর মৃত্যু বাঙালী জাতির জন্য চরম দুর্ভাগ্যের। তাই তার লালিত স্বপ্ন সোনার বাংলা গড়তে আমাদের সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে।’

দোয়া ও আলোচনা শেষে প্রায় ৫ হাজার এতিম ও অসহায় লোকের মাঝে খাবার বিতরন করা হয়।

বাংলাদেশ জার্নাল/ এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত