ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭ আপডেট : ৩ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৪ জুলাই ২০২০, ১৬:০৭

প্রিন্ট

লকডাউনের প্রথম দিন

ওয়ারীতে নানা অজুহাতে সার্ভিস গেটগুলোয় ভিড়

ওয়ারীতে নানা অজুহাতে সার্ভিস গেটগুলোয় ভিড়
সুশান্ত সাহা

করোনা সংক্রমণ রোধে ওয়ারী এলাকাকে শনিবার ভোর ৬টা থেকে ২১ দিনের জন্য লকডাউন করে দেয়া হয়েছে। লকডাউন শুরুর প্রথম দুই ঘণ্টায় সেভাবে লোকজন বের হতে দেখা না গেলেও সকাল ৯টার পর দেখা যায় ভিন্ন চিত্র। জরুরি প্রয়োজনে খোলা থাকা র‌্যাংকিং স্ট্রিট উত্তরা ব্যাংকের রাস্তার মুখ এবং ওয়্যার স্ট্রীট হট কেকের মুখে বেরিয়ে নানা অজুহাত নিয়ে ভিড় করছে মানুষ। কেউ বলছেন অফিসে যাবেন, কেউ বলছেন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে যাবেন। কিন্তু স্বেচ্ছাসেবক ও পুলিশের কঠোর অবস্থানের কারণে এলাকাতে কাউকে প্রবেশ ও বের হতে দেওয়া হচ্ছে না।

করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহের বুথ হিসেবে খোলা হয়েছে ওয়ারী বালিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে। পুলিশের কড়াকড়ি সকল গেটেই। জরুরি সেবার কাজে নিয়োজিত ছাড়া কাউকেই প্রবেশ এবং বের হতে দেয়া হচ্ছে না বলে দাবি পুলিশের। তারা বলেন, ডাক্তার-নার্স-সাংবাদিক ছাড়া কাউকে বের বা ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না।

লকডাউন এলাকার স্বেচ্ছাসেবক মনির বলেন, এলাকাবাসী সুবিধার্থেই লকডাউন করা হয়েছে। এজন্য আমরা কাউকেই বাইরে যেতে এবং প্রবেশ হতে দিচ্ছি না। যদি কেউ এলাকা থেকে একবারে বের হতে চায় তবে তার নাম এবং ছবি তুলে রেখে দিচ্ছি। ২১ দিন পরে লকডাউন শেষ হলেই তিনি এলাকায় প্রবেশ করতে পারবেন।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ মো. এমদাদুল বলেন, সরকারি নির্দেশ মোতাবেক ওয়ারীর একবর্গ কিলোমিটার এলাকায় লকডাউন বাস্তবায়ন করা হয়েছে। লকডাউনে এই এলাকা থেকে কেউ বেরোতে বা প্রবেশ করতে পারবে না। এলাকাটির সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও অফিস কার্যালয় ২১ দিনের জন্য বন্ধ থাকবে। শুধুমাত্র ওষুধের দোকান ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকবে। এলাকায় বসবাসকারী সবাইকে ঘরের ভেতরে থাকতে হবে। লকডাউনে থাকা এলাকার সব নাগরিকের কাছে প্রয়োজনীয় সবকিছু পৌঁছে দেওয়া হবে। লকডাউনের সার্বিক কার্যক্রম মনিটরিংয়ের জন্য ওয়ারী বলধা গার্ডেনে একটি কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে। যদি কেউ লকডাউনের নিয়ম ভঙ্গ করে তবে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে তার বিরুদ্ধে আইনগত কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত ৩০ জুন বিকেলে দক্ষিণ সিটির নগর ভবনে দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ওয়ারী লকডাউনের ঘোষণা দিয়ে জানান, ৪ জুলাই ভোর ৬টা থেকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ওয়ারী এলাকা লকডাউন করা হবে। ২৫ জুলাই পর্যন্ত মোট ২১ দিন লকডাউন কার্যকর থাকবে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় প্রকাশিত প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী ডিএসসিসির ৪১ নম্বর ওয়ার্ড ওয়ারী এলাকা লকডাউনের আওতায় থাকবে- আউটার রোডগুলো হচ্ছে: টিপু সুলতান রোড, যোগীনগর রোড ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক (জয়কালী মন্দির থেকে বলধা গার্ডেন)। এদিকে ইনার রোডগুলো হচ্ছে: লারমিনি স্ট্রিট, হেয়ার স্ট্রিট, ওয়্যার স্ট্রিট, র‌্যাংকিং স্ট্রিট ও নবাব স্ট্রিট।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত