ঢাকা, শুক্রবার, ০২ অক্টোবর ২০২০, ১৮ আশ্বিন ১৪২৭ আপডেট : ৭ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৬:৫২

প্রিন্ট

গোপালগঞ্জে পানি বৃদ্ধিতে নদী ভাঙন, আতঙ্কে স্থানীয়রা

গোপালগঞ্জে পানি বৃদ্ধিতে নদী ভাঙন, আতঙ্কে স্থানীয়রা
গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জে মধুমতি, কুমার নদ, শৈলদহ, বাঘিয়ারকুল, ঘাঘর নদী ও এমবিআর চ্যানেলের পানি বৃদ্ধি স্থাতিশীল থাকলেও প্রতিদিনই নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে।

গোপালগঞ্জ সদর, কাশিয়ানী, মুকসুদপুর ও কোটালীপাড়া উপজেলার অন্তত ২৫টি গ্রামের ২২ হাজার বাসিন্দা পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।

বন্যা কবলিত ৫ শতাধিক পরিবার উঁচু এলাকার বিভিন্ন স্কুলে ও রাস্তার পাশে কুঁড়েঘর বানিয়ে সেখানে আশ্রয় নিয়েছে। এসব এলাকার ছোট-বড় সহস্রাধিক পুকুর বন্যার পানিতে ভেসে গেছে।

এদিকে, বন্যার পানি বৃদ্ধির কারণে মধুমতি নদী ও মধুমিত বিলরুট চ্যানেলের বিভিন্ন স্থানে ভাঙন দেখা দিয়েছে। গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার মধুমতি নদীর মানিকদাহ, জালালাবাদ এলাকায় ভাঙন শুরু হয়েছে। এতে আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে ওইসব এলাকার বাসিন্দারা।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী বিশ্বজিৎ কুমার বৈদ্য জানিয়েছেন, সকাল ৯টায় মধুমতি নদী পয়েন্টে বিপদসীমার ৩৮ সেন্টিমিটার এবং মধুমতি বিলরুট চ্যানেলে বিপদসীমার ৫ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে।

জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা জানান, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ইতোমধ্যে দুর্গতদের সাহায্যের জন্য ৩শ’ মেট্রিক টন চাল এবং শিশু, গো-খাদ্য ও শুকনা খাবারের জন্য ৬ লাখ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত